advertisement
আপনি দেখছেন

দেশের জনগণ রাষ্ট্রীয় অতিথি হিসেবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দেখতে চায় না বলে মন্তব্য করেছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী। শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এমনটি বলেন।

junyed babunogori hefajotহেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী

বিবৃতিতে তিনি উল্লেখ করেন, ‘মুসলমানদের রক্তে যে ব্যক্তির হাত রঞ্জিত তাকে রাষ্ট্রীয় অতিথি হিসেবে বাংলাদেশের জনগণ দেখতে চায় না। তারপরও তাকে আমন্ত্রণ জানালে এর প্রতিবাদে দেশজুড়ে বিক্ষোভ করবে মুসলিম জনতা। সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হবে বলে আশা করছি।’

তিনি বলেন, সম্প্রতি ভারতে মুসলিমবিরোধী বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (সিএএ) প্রতিবাদ করায় রাজধানী দিল্লিতে মুসলমানদের রক্তাক্ত করা হয়েছে। অসংখ্য মুসলমান শহীদ হয়েছেন। মসজিদ পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। মিনারে গেরুয়া পতাকা উড়ানো হয়েছে। এ ঘটনার ধিক্কার জানানোর ভাষা নেই।

তিনি আরো বলেন, ভারতে মুসলমানদের ওপর রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস চালাচ্ছে হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার। তারা গো-হত্যার মিথ্যা অভিযোগ তুলে বিভিন্ন সময় মুসলমানদের ওপর নির্যাতন চালিয়েছে। কাশ্মিরে ইতিহাসের নিকৃষ্টতম বর্বরতা চালাচ্ছে মোদি-অমিত শাহ সরকার।

মুসলমানদের ভারত ছাড়া করার হীন উদ্দেশ্যে মুসলিমবিরোধী নাগরিকত্ব বিল পাশ করা হয়েছে দাবি করে ইসলামী এই নেতা বলেন, এ আইনের প্রতিবাদ করায় দিল্লিতে মুসলমানদের হত্যা করা হচ্ছে। তাদের ওপর বর্বরোচিত হামলা, নৃশংস হত্যা, মসজিদে ভাঙচুর করায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি।

মুসলমানদের ওপর অত্যাচার, নির্যাতন বন্ধ না হলে ভারতের বিরুদ্ধে দূর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন হেফাজতে ইসলামীর এই নেতা।

sheikh mujib 2020