advertisement
আপনি দেখছেন

সিঙ্গাপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরো এক বাংলাদেশি প্রবাসী সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন। এ নিয়ে মোট তিনজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেলেন। এখনও দুইজন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাদের অবস্থা স্থিতিশীল বলে দাবি করেছে সিঙ্গাপুর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। সিঙ্গাপুরের বাইরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এক বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

covid 19 virus

জানা যায়, গতকাল সোমবার হাসপাতাল থেকে ২৬ বছর বয়সী ওই বাংলাদেশি প্রবাসী ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। তিনি সিঙ্গাপুরের সেলেটার এরোস্পেস হেইটস কনস্ট্রাকশন সাইটে কর্মরত আছেন।

সিঙ্গাপুর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, এ নিয়ে মোট তিনজন বাংলাদেশি সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছাড়লো। এখনও দুইজন চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাদের অবস্থা স্থিতিশীল। যেকোনো সময় হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হতে পারে তাদের।

এদিকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এক বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তাকে সেখানকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট ২১ জন আক্রান্ত হলেন। তবে কেউ মারা যায়নি।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ৭৬টি দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৯০ হাজার ৯২৫ জন। মারা গেছেন ৩ হাজার ১২৫ জন। অপরদিকে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৮ হাজার মানুষ।

শুধু চীনের মূল ভূখণ্ডেই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ১৫১ এবং মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৯৪৩ জনের। অপরদিকে, চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা দক্ষিণ কোরিয়ায় এবং সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে ইরানে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় এখন পর্যন্ত ৪ হাজার ৮১২ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন ২৯ জন। ইরানে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৫০১ এবং মারা গেছেন ৬৬ জন। অপরদিকে, ইতালিতে আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৩৬ এবং মৃত্যু হয়েছে ৫২ জনের।

জার্মানিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৫০, স্পেনে ১১৯, সিঙ্গাপুরে ১০৮, কুয়েতে ৫৬, বাহরাইনে ৪৭, যুক্তরাজ্যে ৪০, মালয়েশিয়ায় ২৯, কানাডায় ২৭, সুইজারল্যান্ডে ২৪, ইরাকে ২১, আরব আমিরাতে ২১, নরওয়েতে ১৯, নেদারল্যান্ডে ১৮, ভিয়েতনামে ১৬, সুইডেনে ১৫ এবং অস্ট্রিয়ায় ১৪ জন।

জাপানে নোঙ্গর করা প্রমোদতরী ডায়মন্ড প্রিন্সেসের ৭০৫ জন যাত্রী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন ৬ জন। জাপানে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২৭৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। অপরদিকে, ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৯১ এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের।

অপরদিকে, হংকংয়ে ১০০ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন ২ জন, যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত হয়েছেন ৯১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের, থাইল্যান্ডে আক্রান্ত ৪৩ এবং মৃত্যু ১, তাইওয়ানে ৪১ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন ১ জন, অস্ট্রেলিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ এবং মৃত্যু ১।