advertisement
আপনি দেখছেন

দেশের ব্যাংকিং খাতকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ আখ্যা দিয়েছে ব্যবসায়ী ও শিল্পোদ্যোক্তাদের প্রভাবশালী সংগঠন মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এমসিসিআই)। একই সঙ্গে এই চ্যালেঞ্জ যথাযথভাবে মোকাবেলার জন্য সরকারকে তাগিদ দিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সংগঠনটি।

Bangladesh Bank deposited

২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথমার্ধের (জুলাই-ডিসেম্বর) অর্থনৈতিক পর্যালোচনা তুলে ধরে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, সার্বিকভাবে অর্থনীতির কিছু সূচক ইতিবাচক হলেও অন্তত আটটি ক্ষেত্রে পিছিয়ে আছে। এই ক্ষেত্রগুলোর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দ্রুতই প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের অর্থনীতির বেশির ভাগ সূচকই অস্বস্তিকর অবস্থায় রয়েছে। এর মধ্যে ব্যাংকিং খাত ছাড়াও মূল্যস্ফীতির চাপ, আমদানি-রপ্তানির ধীরগতি, রাজস্ব আদায়ে ঘাটতি, বেসরকারি খাতে ঋণপ্রবাহে ধীরগতি, শেয়ারবাজারের সূচক পতন, বিদেশি বিনিয়োগের (এফডিআই) ধীর গতি এবং বিনিয়োগকারীদের আস্থার ঘাটতি অন্যতম।

একই সঙ্গে অবকাঠামোগত দুর্বলতা, গ্যাস-বিদ্যুতের সমস্যা, ত্রুটিপূর্ণ সঞ্চালন লাইনের সমস্যা উৎপাদন খাতের ওপর প্রভাব ফেলছে জানিয়ে তা সমাধানে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি।

এ বিষয়ে বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাজেকুজ্জামান রতন গণমাধ্যমকে জানান, দেশে অপশাসন ও দুর্নীতির কারণে অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা তলানিতে। ফলে জনদুর্ভোগের পাশাপাশি বেকারত্বও বাড়ছে। এর বিরুদ্ধে রুখে না দাঁড়ালে অর্থনৈতিক খাতে আরো ধস নামবে।

sheikh mujib 2020