advertisement
আপনি দেখছেন

সিলেটে চিকিৎসকের কাছ থেকে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) হতে পারে এমন সন্দেহের কথা শুনে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে গেছেন সৌদি ফেরত এক নারী (৬০)। মঙ্গলবার জেলার দক্ষিণ সুরমা উপজেলার নর্থইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

north east medical college

তবে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যাওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর ওই নারীকে খুঁজে বের করে তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন জেলার সিভিল সার্জন অফিসের কর্মকর্তারা।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, সকালে জ্বর নিয়ে হাসপাতালে আসেন ওই নারী। সেখানে চিকিৎসকরা তার সমস্যার বিস্তারিত শুনেন এবং প্রবাসী জানার পর তার করোনাভাইরাস হয়ে থাকতে পারে বলে সন্দেহ করেন। পাশাপাশি তাকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দিয়ে কিছু প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করানোর জন্য বলেন। এ সময় ওই নারী পরীক্ষাগুলো করানোর নাম করে হাসপাতালে থেকে পালিয়ে যান। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি জেলার সিভিল সার্জনকে অবহিত করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেট জেলা সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মন্ডল বলেন, ওই নারী সৌদি আরব থেকে সপ্তাহখানেক আগে দেশে ফিরেছেন। সম্প্রতি তার জ্বর দেখা দিলে তিনি চিকিৎসার জন্য ওই হাসপাতালে যান। পরে চিকিৎসকের কাছ থেকে করোনাভাইরাস হতে পারে সন্দেহের কথা শুনে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান।

তিনি আরো বলেন, এ ঘটনার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং রোগীর ঠিকানাসহ বিস্তারিত তথ্য দেন। এরপর তারা ওই নারীকে খুঁজে বের করে তার সঙ্গে কথা বলেন। পাশাপাশি ওই নারীর পরিবারের সঙ্গেও কথা বলে পরামর্শ দেন, যাতে তিনি সকল ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করান।

ডা. প্রেমানন্দ মন্ডল আরো বলেন, পরীক্ষা-নিরীক্ষায় যদি ওই নারীর শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয় তাহলে তাকে তার বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হবে। তবে ওই নারী যদি এ পরামর্শ না শোনেন, তাহলে তাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সহায়তায় বাড়ি থেকে নিয়ে আসা হবে।

sheikh mujib 2020