advertisement
আপনি দেখছেন

দেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মোকাবেলায় এবং আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রলালয়কে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। বুধবার এ অর্থ বরাদ্দের কথা জানিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগকে চিঠি পাঠিয়েছে অর্থ বিভাগ।

corona virus

অর্থ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ আবু ইউছুফ স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, দেশে করোনাভাইরাস মোকাবেলা এবং আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য বিভাগের প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে অর্থ বিভাগের অপ্রত্যাশিত ব্যয় ব্যবস্থাপনা খাত থেকে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হল। চলতি ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের সংশোধিত বাজেটে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অনুকূলে সচিবালয় অংশে 'সাধারণ থোক বরাদ্দ' খাতে এ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এই অর্থের মধ্যে চিকিৎসা ও শল্য চিকিৎসা সরঞ্জামাদি সরবরাহে ব্যয় করা হবে ৪৫ কোটি ৫১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা, কেমিকেল রি-এজেন্ট খাতে ব্যয় করা হবে ২ কোটি ৫০ হাজার টাকা এবং জনসচেতনতায় ও প্রকাশনা কাজে ব্যয় করা হবে ১ কোটি ৯৮ লাখ ২৫ হাজার টাকা।

তবে বরাদ্দকৃত এ অর্থ ব্যয়ে কিছু শর্ত রয়েছে। সেগুলো হলো- প্রস্তাবিত খাত (করোনাভাইরাস) ব্যতীত অন্য কোনো খাতে এ অর্থ ব্যয় করা যাবে না। অর্থ ব্যয় করার ১০ দিনের মধ্যে ব্যয়ের খাত সম্পর্কে অর্থ বিভাগকে বিস্তারিত জানাতে হবে।

এর আগে গত ৫ মার্চ করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ চেয়ে অর্থ মন্ত্রণালয় বরাবর চিঠি দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব সুশীল কুমার পাল স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। সেই ধারাবাহিকতায় স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং জেলা/উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে উপদেষ্টা করে দুটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এছাড়া করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র সিসিইউ, আইসিইউ, আইসোলেশন ওয়ার্ড, সহায়ক স্বাস্থ্যসেবা (সাপোর্ট কেয়ার) চালু করাসহ করোনা পরীক্ষার কীট এবং বিভিন্ন যন্ত্রপাতি ক্রয়ের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। চলতি (২০১৯-২০) অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের বরাদ্দ খাতে আরো ১০০ কোটি টাকা প্রয়োজন।

sheikh mujib 2020