advertisement
আপনি দেখছেন

কোয়ারেন্টাইনে থাকা ইতালি ফেরত ১৪২ যাত্রী ও তাদের অভিভাবকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন। আজ সকালে তাদেরকে বিমানবন্দর থেকে আশকোনা হজ ক্যাম্পে নিয়ে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। কিন্তু দুপুরের পর থেকে তারা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় বাইরে থাকা অভিভাবকরা। পুলিশ এসে বাধা দিলে শুরু হয় কথা কাটাকাটি আর হট্টগোল।

corona hajj camp

তাদের অভিযোগ, কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই তাদেরকে আটকে রাখা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ কী করতে চায়, কতক্ষণ এভাবে রাখতে চায় তাও স্পষ্ট করে বলছে না। ভেতরে কোনো খাবারও পাওয়া যাচ্ছে না। সকাল থেকে তারা শুধু পানি খেয়ে আছেন। সঙ্গে থাকা শিশুরা ক্ষুধায় কান্নাকাটি করছে।

ক্যাম্পের বাইরে থাকা একজন অভিভাবক জানান, প্রয়োজন হলে তিনি তার স্বজনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখবেন। কিন্তু এখানে এভাবে মানবেতর জীবন-যাপন মেনে নিতে পারছেন না। ইতালি ফেরত একজন গেটে দাঁড়িয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদেরকে দু’দুবার পরীক্ষা করা হয়েছে। একবার রোমে, আরেকবার দুবাইতে। সেখানে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়নি। চাইলে কর্তৃপক্ষ আবার পরীক্ষা করতে পারে কিন্তু তা না করে আমাদেরকে এভাবে আটকে রাখা হচ্ছে কেন?

ওদিকে আজ দুপুরে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ইতালি ফেরতদের মধ্যে কেউ করোনা আক্রান্ত নন। যথাযথ পরীক্ষা করে তাদের মধ্যে সংক্রমণের কোনো ঝুঁকি পাওয়া গেলে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।