advertisement
আপনি দেখছেন

রাজধানীর আশকোনায় হজক্যাম্পে কোয়ারেন্টাইনে থাকা ইতালি ফেরত ১৪২ যাত্রী ও তাদের অভিভাবকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন। আজ শনিবার সকালে তাদেরকে বিমানবন্দর থেকে আশকোনা হজক্যাম্পে নিয়ে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। কিন্তু দুপুরের পর থেকে তারা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পরে পুলিশ তাদের ক্যাম্পের কোয়ারেন্টাইনে ফেরত পাঠিয়ে দেয়। এ রকম বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এখন থেকে আশকোনা হজক্যাম্পে পুলিশের পাশাপাশি সেনা সদস্যও মোতায়েন থাকবে।

ashkona haj campআশকোনা হজ ক্যাম্প

শনিবার সন্ধ্যায় এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর- আইএসপিআর।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আশকোনা হজক্যাম্পে বিদেশ থেকে যাত্রীদের একসেস কন্ট্রোল ও নিরাপত্তায় স্বার্থে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। সিদ্ধান্তটি নেয়া হয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুরোধে।

ইতালি ফেরতদের অভিযোগ, কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই তাদেরকে আটকে রাখা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ কী করতে চায়, কতক্ষণ এভাবে রাখতে চায় তাও স্পষ্ট করে বলছে না। ভেতরে কোনো খাবারও পাওয়া যাচ্ছে না। সকাল থেকে তারা শুধু পানি খেয়ে আছেন। সঙ্গে থাকা শিশুরা ক্ষুধায় কান্নাকাটি করছে।

ashkona haj camp02অভিভাবকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন

ক্যাম্পের বাইরে থাকা একজন অভিভাবক জানান, প্রয়োজন হলে তিনি তার স্বজনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখবেন। কিন্তু এখানে এভাবে মানবেতর জীবন-যাপন মেনে নিতে পারছেন না।

ইতালি ফেরত একজন গেটে দাঁড়িয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদেরকে দু’দুবার পরীক্ষা করা হয়েছে। একবার রোমে, আরেকবার দুবাইতে। সেখানে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়নি। চাইলে কর্তৃপক্ষ আবার পরীক্ষা করতে পারে, কিন্তু তা না করে আমাদেরকে এভাবে আটকে রাখা হচ্ছে কেন?

ওদিকে, আজ দুপুরে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ইতালি ফেরতদের মধ্যে কেউ করোনা আক্রান্ত নন। যথাযথ পরীক্ষা করে তাদের মধ্যে সংক্রমণের কোনো ঝুঁকি পাওয়া গেলে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। কোয়ারেন্টাইনের বিধান না মানলে শাস্তির কথাও বলেন তিনি।

sheikh mujib 2020