advertisement
আপনি দেখছেন

প্রবাসীরা দেশে আসার পর নবাবজাদা হয়ে যান বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। রোববার বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজে (বিআইআইএসএস) এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

foreign minisrter momen

আব্দুল মোমেন বলেন, প্রবাসীরা দেশে এসে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে চান না। তারা ফাইভ স্টার হোটেলে থাকতে পছন্দ করেন। গতকাল ইতালি থেকে যারা এসেছেন তারা বাড়িতে যেতে চান। হজক্যাম্পে থাকাটা তারা পছন্দ করছেন না।

তিনি বলেন, এই মানুষগুলো বাড়িতে ফ্ল্যাট বাথরুম, কমোড বাথরুম ইউজ করেন, তাই তাদের অসুবিধা হচ্ছে। যে খাবার দেয়া হচ্ছে সেগুলো তাদের পছন্দ না, বলছে এগুলো নোংরা। তারা সোনারগাঁও, ফাইভ স্টার হোটোলের খাবার চায়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সরকারের কিছু দুর্বলতা আছে তা ঠিক। তারপরও হজক্যাম্পে রাখাটা একটা বিশেষ ব্যবস্থা। বিকল্প হিসেবে ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটা হাসপাতালও জোগাড় করা হয়েছে।

ফ্লাইট বন্ধের ব্যাপারে বলেন, যে দেশগুলোতে করোনার সংক্রমণ বেশি ছড়িয়েছে সেসব দেশ থেকে বাংলাদেশে আসার ফ্লাইট বন্ধ করা হয়েছে। আজ রাত ১২টা ১মিনিট থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। তাছাড়া সরকার চায় না দুই একজনের কারণে দেশের ১৬ কোটি মানুষ অসুবিধায় পড়ুক।

প্রবাসীদের দেশে না আসতে অনেক আগে থেকেই বলা হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কিন্তু তারা শুনছেন না। বাধ্য হয়েই ফ্লাইট বন্ধ করতে হচ্ছে। আর ভারত যেহেতু বাংলাদেশি নাগরিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে তাই বাংলাদেশও তাদের দেশের নাগরিকদের এদেশে আসতে দেবে না।