advertisement
আপনি দেখছেন

দেশে করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে খাদ্যের কোনো সংকট হবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশ এখন খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ। তাই এ ব্যাপারে কেউ গুজব ছড়াবেন না। মানুষকে হতাশ করবেন না। যারা গুজব ছড়াবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

pm hasina adrees nationজাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আজ বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন তিনি। ভাষণের শুরুতেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করেন। সেইসঙ্গে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান শহীদদেরও স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপরই দেশবাসীর উদ্দেশ্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশে এখন পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্য মজুদ আছে। সরকারি গুদামগুলোতে ১৭ লাখ মেট্রিক টনের বেশি খাদ্যশস্য মজুদ রয়েছে। এ ছাড়া বেসরকারি মিল মালিক এবং কৃষকদের ঘরে প্রচুর পরিমাণ খাদ্যশস্য মজুদ আছে। তাই এ নিয়ে কেউ আতঙ্কিত হবেন না।

তিনি বলেন, চলতি বছর আমনের বাম্পার ফলন হয়েছে। এ মৌসুমে আলু, পেঁয়াজ, মরিচ, গমের বাম্পার ফলন হয়েছে। তাই কৃষকদের প্রতি অনুরোধ, আপনারা কোনো জমি খালি রাখবেন না। সেগুলোতে আরো বেশি করে ফসল ফলান। যেন জাতির সংকটময় মুহূর্তে তা কাজে লাগে। তাছাড়া দুর্যোগের সময়ই মনুষ্যত্বের পরীক্ষা হয়।

আজ পুরো বিশ্ব এক অনিশ্চয়তার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। তাই এখনই সময় পরস্পরকে সহায়তা করার। নিজের ভেতরে থাকা মানবতা প্রর্দশনের, যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

যেকোনো কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকার প্রস্তুত রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা জনগণের সরকার। তাদের পাশে সব সময় ছিলাম এবং ভবিষ্যতেও থাকবো। আমি নিজে পরিস্থিতির ওপর সার্বক্ষণিক নজর রাখছি।

তাই দয়া করে কেউ অতিরিক্ত ভোগ্যপণ্য কিনে সেগুলো মজুদ করবেন না। স্বল্প আয়ের মানুষদের কেনার সুযোগ দিন। আমরা বীরের জাতি। বিভিন্ন দুর্যোগ-সঙ্কট মোকাবেলায় কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বাঙালি জাতি লড়াই করেছে। আগামী দিনেও এ লড়াই অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ।