advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাস শনাক্তের কিট উৎপাদন করছে দেশের বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। সম্প্রতি সে কথা গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এবার জানা গেল, আগামী ১১ এপ্রিল দেশবাসীকে করোনা কিট উপহার দিতে যাচ্ছেন তারা।

dr zafrullah chowdhuryডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

আজ রোববার ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বরাত দিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিশিষ্ট কলামিষ্ট ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. আসিফ নজরুল। বিকেলে এক ফেসবুক পোস্টে তিনি জানান, আগামী ১১ এপ্রিল দেশবাসীকে করোনা কিট উপহার দিতে যাচ্ছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। এ জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কিছু সহযোগিতা লাগবে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় যদি সামান্য সহযোগিতা করে তাহলে ১১ই এপ্রিল থেকে দেশে উৎপাদিত কিট দিয়ে স্বল্পমূল্যে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা যাবে বলে আশাবাদী ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। বিষয়টি তিনি নিজেই জানিয়েছেন।

সরকারের সহযোগিতা কামনা করে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, কিট উৎপাদনের কাজে পররাষ্ট্রমন্ত্রী, এনবিআর চেয়ারম্যান এবং চীনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত যথেষ্ঠ সহযোগিতা করেছেন। এখন শুধু সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটু সহযোগিতা দরকার।

তারা যদি এ কিট দিয়ে করোনা শনাক্তকরনের কার্যকারিতা পরীক্ষার অনুমতি দেয়, তাহলে ১১ এপ্রিল সুসংবাদটি দেয়া যাবে।

জানা যায়, গত ফেব্রুয়ারি থেকে এই কিটের ডিজাইন এবং উৎপাদন প্রক্রিয়া নিয়ে কাজ করছেন গণস্বাস্থ্য-আরএনএ বায়োটেক লিমিটেডের একদল গবেষক। তাদের এ ব্যাপারে ভালো অভিজ্ঞতাও আছে। গবেষক দলের নেতৃত্বে আছেন ড. বিজন কুমার শীল। তিনি ২০০৩ সালে র‍্যাপিড ডট ব্লট সার্স পিওসি কিট তৈরি দলের সদস্য ছিলেন।