advertisement
আপনি দেখছেন

রাজধানীতে একই পরিবারের ছয়জন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। তারা সবুজবাগ থানার নন্দিপাড়া এলাকার একটি বাসায় থাকতেন। তাদের সবাইকে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

corona virus newকরোনাভাইরাস- প্রতীকী ছবি

রোববার বিষয়টি নিশ্চিত করে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, দেশে এখন পর্যন্ত যে ৮৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের মধ্যেই এই ছয়জন আছেন।

এ বিষয়ে সবুজবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব আলম জানান, নন্দিপাড়ার একটি চারতলা ভবনে তত্ত্বাবধায়কের কাজ করা এক বৃদ্ধের (৬৫) শরীরে গত শুক্রবার করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়। পরবর্তীতে নমুনা পরীক্ষা করলে ওই পরিবারের আরো ৫ সদস্যের শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া যায়।

তারা হলেন- ওই বৃদ্ধের স্ত্রী, দুই মেয়ে এবং দুই নাতনি। নাতনিদের একজনের বয়স ছয় মাস, অন্যজনের বয়স আড়াই বছর। ওই বৃদ্ধ থেকেই সবাই সংক্রমিত হয়েছেন। তবে ওই বৃদ্ধ কীভাবে কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তা জানা যায়নি।

এই ঘটনার পর ওই ভবনসহ আশেপাশের নয়টি ভবন লকডাউন করা হয়েছে বলে জানান ওসি মাহবুব আলম। সেসব বাসিন্দাদের শুধু জরুরি প্রয়োজনে বাইরে যেতে দেওয়া হচ্ছে।

রোববার আইইডিসিআর জানায়, দেশে নতুন করে আরো ১৮ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। ফলে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৮ জনে। এদের মধ্যে ৫৫ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এছাড়া নতুন করে একজনে মৃত্যু হওয়ায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৯ জনে।