advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে দেশব্যাপী সাধারণ ছুটি চলছে। এতে বিপাকে পড়েছেন দরিদ্র, অসহায় ও নিম্ন আয়ের মানুষগুলো। তাদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসছেন অনেকেই। কেউ ব্যক্তিগতভাবে আবার কেউ প্রতিষ্ঠানিকভাবে সাহায্য করছেন।

child sajid satkhiraজমানো টাকা দিয়ে অসহায় মানুষের পাশে শিশু শিক্ষার্থী সাজিদ

যারা আর্থিকভাবে কিছুটা ভালো অবস্থানে আছেন তারা সবাই চেষ্টা করছেন অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর। আর যারা আর্থিকভাবে সহযোগিতা করতে পারছেন না, তারাও চেষ্টা করছেন অন্যকোনো দিক দিয়ে সহযোগিতা করার। 

দেশের সবাই যখন অসহায়দের পাশে দাঁড়াচ্ছেন তখন প্রথম শ্রেণির শিশু শিক্ষার্থী নাজমুস সাহদাত সাজিদ বাদ যাবে কেন। সেও তার টিফিনের জমানো টাকা দিয়ে খাদ্যসামগ্রী কিনে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে।

গতকাল সোমবার ওই টাকা দিয়ে মোট ১১টি পরিবারকে ৪ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ৫০০ গ্রাম লবণ, ৫০০ গ্রাম তেল ও ১ কেজি আলু কিনে দিয়েছে সাজিদ।

এ বিষয়ে তার বাবা সহিদুর জামান বলেন, সাজিদকে টিফিনের জন্য টাকা দেয়া হলে সেখান থেকে সে কিছু অংশ জমাতো। করোনাভাইরাসের কারণে দেশে অচলাবস্থা সৃষ্টি হওয়ায় বিপদে পড়ে অসহায় মানুষগুলো। তাদের সহযোগিতায় সবাই এগিয়ে আসছে। তাই সাজিদও তাদের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করে।

এরপর তার জমানো টাকাগুলো সে আমার হাতে তুলে দেয়। এগুলো দিয়ে গতকাল ১১টি পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী কিনে দেয়া হয়েছে, যোগ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, নাজমুস সাহদাত সাজিদ সাতক্ষীরা পাবলিক স্কুলের স্ট্যান্ডার্ড ওয়ানের শিক্ষার্থী। শহরের পুরাতন সাতক্ষীরায় তার বাসা।