advertisement
আপনি দেখছেন

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, চলতি এপ্রিলে বাংলাদেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশংকা রয়েছে। তাই এই মাস খুব ক্রিটিকাল। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর তেজগাঁওতে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

health minister jahid shaponস্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে গত কয়েকমাসে নয় লাখ মানুষ বাইরে থেকে এসেছে। তারা অনেকেই এখন হোম কোয়েরান্টাইনে আছেন। এত সংখ্যক মানুষ বাইরে থেকে এলেও যথাযথ ব্যবস্থার কারণে দেশের পরিস্থিতি অনেক দেশের তুলনায় ভালো। তবে চলটি এপ্রিল আমাদের জন্য বেশ ঝুকিপূর্ণ। সবাইকে এ সময়ে সতর্ক থাকতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের খুব সাহসিকতার সঙ্গে কাজ করে যেতে হবে। সংকটাপন্ন এ সময়ে সব কর্মকর্তাকে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। যেসব এলাকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে সেসব এলাকার দিকে বেশি খেয়াল রাখতে হবে।

জাহিদ মালেক বলেন, সরকার থেকে টেস্টিং ল্যাব বাড়ানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে। স্বল্প সময়ের মধ্যে ১৭-১৮টি ল্যাব চালু করতে সক্ষম হয়েছি। যারা টেস্টিং এর দায়িত্বে আছেন তাদের অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে টেস্টিং যেন ভালো হয়। আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি বেশি সংখ্যক টেস্টিং করানোর। বিশেষ করে বিদেশফেরত ও তাদের সংপর্শে আসা ব্যাক্তিদের নিকটস্থ ল্যাবে টেস্ট করানো খুব জরুরি।