advertisement
আপনি দেখছেন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণের সর্বোচ্চ ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও ফের সংঘর্ষে জড়িয়েছে দুটি পক্ষ। আজ শুক্রবার সরাইল উপজেলার পানিশ্বর গ্রামে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত কয়েক দফায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

b baria clashতুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ফের সংঘর্ষ

বিষয়টি নিশ্চিত করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোজাম্মেল হোসেন রেজা বলেন, সংঘর্ষ বাধার পর পরই পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। বর্তমান আশপাশের এলাকায় পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাড়ির রাস্তার জায়গা নিয়ে পানিশ্বর গ্রামের বাসিন্দা দানা মিয়ার সঙ্গে প্রতিবেশী মলয়ের তর্কাতর্কি হয়। এর জের ধরে আজ ভোররাতে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়ায়। পরে মীমাংসার জন্য সকাল ৮টার দিকে তাদের নিয়ে সালিশ বৈঠক করেন গ্রামের সর্দাররা।

বৈঠকে কোনো মীমাংসা না হওয়ায় ফের দেশীয় অস্ত্র নিয়ে উভয় পক্ষের লোকজন দফায় দফায় সংঘর্ষে জড়ায়। এতে দুই পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হন। তাদের সবাইকে চিকিৎসার জন্য সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও জেলা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। এ ছাড়া মারাত্মকভাবে আহত দুইজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।