advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় বাংলাদেশ যথাসময়ে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনায় সঠিকভাবে ভাইরাসটি মোকাবেলার কারণে পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। গতকাল জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী এসব কথা বলেন। এ সময় তার সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলেন নরওয়ের রাষ্ট্রদূত সিডসেন ব্লেকেন।

speaker dr shirin sarmin

নরওয়ের রাষ্ট্রদূত সিডসেন ব্লেকেন ৪ বছর দায়িত্ব পালন শেষে বাংলাদেশ থেকে বিদায় নিচ্ছেন। শিরীন শারমিন চৌধুরী তার প্রশংসা করে বলেন, অত্যন্ত সফলতার সঙ্গে আপনি আপনার দায়িত্ব পালন করেছেন। এর ফলে বাংলাদেশ-নরওয়ের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক এখন অন্য যেকোনো সময়ের চাইতে শক্তিশালী। সময়ের ব্যবধানে এই সম্পর্ক আরো শক্তিশালী হলে বলে মন্তব্য করেন স্পিকার।

বিদায়কালে সিডসেন ব্লেকেন বাংলাদেশের করোনা পরিস্থতি, বর্তমান সরকারের সাফল্য, দুই দেশের সম্পর্ক, করোনাভাইরাস মোকাবেলাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। তিনি বলেন, নরওয়ে যেসব দেশকে তার সবেচেয়ে কাছে বন্ধু বিবেচনা করে তার মধ্যে একটি হল বাংলাদেশ। আমি আশা প্রকাশ করি, দিন দিন এই সম্পর্ক আরো গভীর হবে। পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট যে কোনো বিষয়ে একে অপরের পাশে থাকবে দুই দেশ।

update 22april

করোনা মোকাবেলা নিয়ে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ইউরোপের দেশগুলোর চাইতে বাংলাদেশ অনেক ঘনবসতিপূর্ণ। তারপরও করোনা মোকাবেলায় ইউরোপের দেশগুলোর চাইতে আমাদের অবস্থা অনেক ভালো। সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার কারণেই পরিস্থিতি এখনো ভালো আছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী এবং সময়োচিত সিদ্ধান্তের কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে।

sheikh mujib 2020