advertisement
আপনি দেখছেন

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে ১৪ থেকে ১৫ আগস্ট ধানমণ্ডি-৩২ নম্বর ও বনানী কবরস্থানের আশপাশ এলাকার হোটেল, গেস্ট হাউজ বন্ধ থাকবে। পাশাপাশি এসব এলাকার মেসগুলোতেও পুলিশের নজরদারি বাড়ানো হবে। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তথ্যটি জানানো হয়েছে।

dmp bd

সেখানে বলা হয়েছে, জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে ১৪ থেকে ১৫ আগস্ট ধানমণ্ডি-৩২ ও বনানী কবরস্থানকেন্দ্রিক অনুষ্ঠান স্থল ও তার আশপাশের এলাকা সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে। পোশাকে ও সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবেন। পাশাপাশি ডগ স্কোয়াড ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট দিয়ে সুইপিং করা হবে। ধানমণ্ডি লেকে নৌ পুলিশের টহল এবং ১৫ আগস্টের অনুষ্ঠানকে ঘিরে ধানমণ্ডি-৩২ কেন্দ্রিক নিরাপত্তায় মোতায়েন থাকবে ফায়ার টেন্ডার ও অ্যাম্বুলেন্স।

ডিএমপির মিডিয়া ও পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) ওয়ালিদ হোসেন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ধানমণ্ডি-৩২ ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসা প্রত্যেক ব্যক্তিকে হ্যান্ড মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাশি করে আর্চওয়ের ভেতর দিয়ে প্রবেশ করতে হবে। বনানী কবরস্থানেও আর্চওয়ে, চেকপোস্ট থাকবে। সবাইকে তল্লাশির মাধ্যমে প্রবেশ করানো হবে। এলাকাগুলোতে ইতোমধ্যে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো এবং পর্যাপ্তসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

obaidul kader in dhanmondi 32

ধানমণ্ডি-৩২ নম্বরে ভিভিআইপি, ভিআইপি, সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা মানিক মিয়া এভিনিউ (ধানমণ্ডি-২৭ নম্বর ক্রসিং), মিরপুর রোড (মেট্রো শপিংমল মোড়), ধানমণ্ডি-৩২ নম্বরের পশ্চিম প্রান্ত দিয়ে প্রবেশ এবং একই পথে বের হবেন। এ ছাড়া সর্বসাধারণের ক্ষেত্রে রাসেল স্কয়ার থেকে ধানমণ্ডি-৩২ নম্বরের পূর্ব দিক দিয়ে প্রবেশ করে পশ্চিম দিকে বের হতে হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

sheikh mujib 2020