advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আনার জন্য ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে চুক্তি করেছে বাংলাদেশ। ২৫ জানুয়ারির আগেই প্রথম চালান চলে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে। এর মধ্যেই বিতর্ক উঠেছে দাম নিয়ে। সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে ভারত যে দামে ভ্যাকসিন কিনছে, বাংলাদেশ কিনছে তারচেয়ে ৪৭ শতাংশ বেশি দামে। এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলছেন, ভারত লাভ ছাড়া ভ্যাকসিন বিক্রি করবে কেন?

ahm mustafa kamal 1অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল

দুদিন আগে সেরাম ইনস্টিটিউটের কোভিড ভ্যাকসিনের দাম নিয়ে একটি প্রতিবেদন করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। সেখানে বলা হয়েছে, ভারত সরকার সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে প্রতি ডোজ ভ্যাকসিন কিনছে ২০০ রুপি (২.৭২ ডলার) দামে। একই ভ্যাকসিন বাংলাদেশের ক্ষেত্রে দাম পড়েছে ৪ ডলার! ভারতের তুলনায় যা ৪৭ শতাংশ বেশি।

এ ব্যাপারে রয়টার্স জানাচ্ছে, ভ্যাকসিনের এমন দামের ব্যাপারে মন্তব্য জানতে বাংলাদেশের দায়িত্বশীলদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছে তারা, কিন্তু কেউ মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। অতঃপর দুদিন পরে আজ এ নিয়ে মুখ খুললেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। আজ বুধবার (১৩ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ নিয়ে কথা বলেন অর্থমন্ত্রী।

covishield india comingসেরাম ইনস্টিটিউটের ভ্যাকসিন ‘কোভিশিল্ড’

আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ভারত যে দামে ভ্যাকসিন কিনবে আমরাও সেই দামে পাবো- এটা আশা করা ঠিক হবে না। তারা যদি উৎপাদন করে থাকে তাহলে তো কম দামে কিনবেই। আবার যখন বিক্রি করবে তখন খরচ এবং লাভ- দুটিকে একত্র করে তবেই বিক্রি করবে। এ নিয়ে বিচলিত হওয়ার কিছু নেই।

sheikh mujib 2020