advertisement
আপনি পড়ছেন

গুলশানে হামলার ঘটনাকে বাংলাদেশের জন্য ‘এক নতুন অধ্যায়ের দুঃখজনক সূচনা’ বলে আখ্যায়িত করেছেন মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। বাংলাদেশের এই চিত্রপরিচালক সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে প্রায়ই মন্তব্য করেন। তার বুদ্ধিদীপ্ত বিশ্লেষণ তরুণ প্রজন্মের কাছে দারুণভাবে সমাদৃত হয়।

mostofa sarwar farooki

সম্প্রতি ‘ডুব’ নামের নতুন চলচ্চিত্র নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। এরই ফাঁকে কথা বলেছেন গুলশান- সংকট নিয়ে। ফারুকী বলেন, ‘ঢাকা আমরা ভালোই আছি। কিন্তু বাংলাদেশ ভালো নেই। যেখানে এমন ঘটনা ঘটলো, তার খুব কাছেই আমি থাকি। এমন কি ঘটনার কয়েক ঘণ্টা আগে আমি ঘটনাস্থলের আশপাশেই ছিলাম।’

ঘটনার দিন সন্ধ্যার সময় হলি আর্টিজানেই খাবার খাওয়ার একটা পরিকল্পনা ছিলো ফারুকীর। তিনি বলেন, ‘শুক্রবার সন্ধ্যায় রাতের খাবার খাওয়ার জন্য গুলশানে একটা ভালো রেস্তোরাঁ খুঁজছিলাম আমরা। এর মধ্যে হলি আর্টিজানের নামও ছিলো। সেখানকার খাবারের খুব বড় ভক্ত নই আমি। ফলে সেখানে আর যাওয়া হয়নি। আসলে কোনো রেস্তোরাঁয়ই আমরা ঢুকিনি।’

ভারতীয় একটি গণমাধ্যম থেকে ফারুকীকে প্রশ্ন করা হয়েছিলো, বাংলাদেশকে আফগানিস্তানের মতো ভাগ্য বরণ করতে যাচ্ছে। জবাবে ফারুকী বলেন, ‘আফগানিস্তানে ব্যাপারটা একদম স্পষ্ট। কিন্তু বাংলাদেশে তেমন নয়। এখানে সব কিছু জটিল। বাংলাদেশের মানুষ সাধারণ মধ্যমপন্থী।’ 

তিনি আরো বলেন, ‘ঐতিহাসিকভাবে আমাদের সমাজ নানা ঘরানার মানুষে পূর্ণ। এখানে সন্ত্রাসীদের জন্য সামাজিক পক্ষাপাতিত্ব পাওয়া সহজ ব্যাপার নয়। তারপরও সন্ত্রাসীরা এখান থেকে কিভাবে অনুসারী পাচ্ছে? আমাদের ভেবে দেখতে হবে কীভাবে কী হচ্ছে। কারণ যা-ই হোক না কেনো, সার্বিক পরিস্থিতি নিশ্চিতভাবে খুব বাজে পরিণতির দিকে এগোচ্ছে।’

আপনি আরো পড়তে পারেন

খালেদা জিয়া: আসুন সন্ত্রাসবিরোধী ঐক্য গড়ে তুলি

স্বাস্থ্যমন্ত্রী: গুলশানের হামলা প্রশিক্ষিত শিবিরদের কাজ

হাছান মাহমুদ: জঙ্গিরা খালেদা জিয়ার পাশে থাকে

গুলশান হামলায় নিহতরা কারা

ফেসবুকে মিলছে গুলশানে হামলাকারীদের পরিচয়