advertisement
আপনি পড়ছেন

আজ সোমবার একটু পরই গুলশানে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে। সকাল সাড়ে ১০টায় বনানীস্থ আর্মি স্টেডিয়ামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে শুরু হবে শ্রদ্ধানুষ্ঠান।

gulshan attack army stadium

ইতোমধ্যেই নিহতদের লাশ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল থেকে স্টেডিয়ামে আনা হয়েছে বলে জানা গেছে। নিহতদের কফিনগুলো বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা দিয়ে ঢেকে অনুষ্ঠানের মূল মঞ্চে রাখা হয়েছে।

বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও দেশের সর্বস্তরের মানুষ নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর পর মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। ইতোমধ্যে নিহতদের স্বজনরাও আর্মি স্টেডিয়ামে উপস্থিত হয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদনের পর জাতীয় সংসদে বিরোধী দল জাতীয় পার্টি ও মন্ত্রিসভার সদস্যরা শ্রদ্ধা জানাবেন। এরপর তিন বাহিনীর প্রধান এবং ঢাকাস্থ বিভিন্ন দূতাবাসের প্রতিনিধিরা শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করবেন। এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ও সাধারণ মানুষ বেলা ১২টা পর্যন্ত শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের সুযোগ পাবেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠানটি সেনাবাহিনীর ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত হলেও অনুষ্ঠান উপলক্ষে পুলিশসহ সরকারের অন্যান্য বাহিনীর সদস্যদের সাহায্যে পুরো আর্মি স্টেডিয়াম এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।

আপনি আরও পড়তে পারেন

নিজে মরে বন্ধুত্ব বাঁচিয়েছেন ফারাজ

খালেদা জিয়া: আসুন সন্ত্রাসবিরোধী ঐক্য গড়ে তুলি

স্বাস্থ্যমন্ত্রী: গুলশানের হামলা প্রশিক্ষিত শিবিরদের কাজ

ফারুকী: গুলশানের ঘটনা নতুন অধ্যায়ের দুঃখজনক সূচনা

হাছান মাহমুদ: জঙ্গিরা খালেদা জিয়ার পাশে থাকে