advertisement
আপনি পড়ছেন

দেশে চলমান সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে অবশেষে বিবৃতি দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। এ বিষয়ে এক বিবৃতিতে জঙ্গিবাদ নয়, দেশের শান্তি প্রতিষ্ঠায় হেফাজত ও দেশের আলেম সমাজ নিবেদিত বলে জানিয়েছে দলটি।

hefajote islam logo

সম্প্রতি গুলশান ও শোলাকিয়ায় হামলা বিষয়ে হেফাজতের নিরব থাকা প্রসঙ্গে পুলিশের মহাপরিদর্শক একেএম শহীদুল হক হেফাজতের কাছে প্রশ্ন রাখেন। তার একদিন পরই নিরবতা ভেঙ্গে বিবৃতি প্রকাশ করলো হেফাজত।

একেএম শহীদুল হক তার বক্তৃতায় বলেন, আপনারা নীরব কেন, জঙ্গিদের বিরুদ্ধে আপনারা কেন সোচ্চার হচ্ছেন না? যদি আপনারা নীরব থাকেন তাহলে জঙ্গিবাদের প্রতি আপনাদের সমর্থন প্রমাণ করে।

হেফাজত বিবৃতির শুরুতে পুলিশ প্রধানের ওই বক্তব্যের সমালোচনা করে বলে, হেফাজতকে নিয়ে পুলিশ প্রধানের বক্তব্য অসত্য ও জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা। পুলিশ প্রধানের কাজ হেফাজতকে ঘায়েল করা নয়, অপরাধীদের ধরে শাস্তি নিশ্চিত করা।

বিবৃতিতে হেফাজত জানায়, দেশের আলেম উলামাগণ আগেও সকল ধরনের জঙ্গী বা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন, এখনও আছেন। আর হেফাজত ইসলাম সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, জুলম-নির্যাতন, দুর্নীতি ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে থাকাকে ঈমানি দায়িত্ব হিসেব মেনে চলে। 

প্রসঙ্গত, গত ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি এন্ড রেস্টোরেন্টে সন্ত্রাসী হামলা হয়। ওই হামলায় ১৭ বিদেশিসহ অন্তত ২২ জন নিহত হন।এরপর সপ্তাহ না পেরোতেই ঈদের দিন দেশের বৃহত্তর ঈদ জামায়াত শোলাকিয়ায় নামাজের আগে পুলিশের ওপর হামলা হয়। দুই ঘটনার বিষয়ে এতোদিন কোন বিবৃতি দেয়নি হেফাজতে ইসলাম। হেফাজতের দিকে পুলিশ প্রধানের প্রশ্ন ছুড়ে দেয়ার পরই নিজের অবস্থান পরিস্কার করে বক্তব্য দিল হেফাজত।

আপনি আরো পড়তে পারেন 

নাসিম: নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে

পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধের সিদ্ধান্ত

রিজভী: সরকার জঙ্গিবাদকে জিইয়ে রাখতে চায়

মন্ত্রণালয়ের নির্দেশের আগেই পিস টিভি বন্ধ

কর্মস্থলে ফিরেছেন শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্ত