advertisement
আপনি দেখছেন

করোনা আক্রান্তের সনদ নিয়েই এক ব্যক্তি ওমান থেকে সালাম এয়ারের ওভি-৩৯৭ ফ্লাইটে দেশে এসেছেন। প্রায় ১৫০ জন যাত্রীর সঙ্গে গতকাল মঙ্গলবার সকালে ঢাকার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি।

shahjalal airport dhaka newশাহজালাল বিমানবন্দর, ফাইল ছবি

‘করোনা নেগেটিভ’ সনদ নিয়ে বিমানে উঠার নিয়ম থাকলেও ওই যাত্রী ‘করোনা পজিটিভ’ সনদ নিয়ে মাস্কাট থেকে ফ্লাইটে উঠেন। সেখানকার বিমানবন্দর, চেক-ইন, ইমিগ্রেশন হয়ে স্বাভাবিকভাবেই ঢাকায় আসেন তিনি।

দেশে এসে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ডেস্কে দীর্ঘ লাইনে আধা ঘণ্টা দাঁড়িয়েছিলেন মধ্যবয়স্ক ওই ব্যক্তি। সেখানে করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হলে নিজেই স্বীকার করেন বিষয়টি, পাঠানো হয় কুয়েত-মৈত্রী হাসপাতালে।

এ বিষয়ে হেলথ ডেস্কের ডিউটি অফিসার বলেন, করোনা পজিটিভ সনদ থাকার পরেও এমন কাণ্ড তিনি কেন করলেন, তার কোনো সদুত্তর পাওয়া যায়নি।

salam airসালাম এয়ার, ফাইল ছবি

বিমানবন্দরে ম্যাজিস্ট্রেটের দায়িত্ব পালন করা আহমেদ জামিল জানান, ফ্লাইটে যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রে ওমানে বেশ কড়াকড়ি রয়েছে। তারপরেও ওই ব্যক্তিকে বহন করায় সালাম এয়ারকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এ ছাড়া ফ্লাইটটিতে আসা যাত্রীদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এর আগে গত ৫ এপ্রিল সৌদি আরব থেকে আসা এক করোনা রোগীকে কুয়েত-মৈত্রী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ছাড়াও বিভিন্ন দেশ থেকে আসা যাত্রীদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে অথবা হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হচ্ছে। এই তালিকায় রয়েছে রশিয়া, সৌদি আরব, যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশে আসা মানুষ।