advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের চলমান মহামারি রোধে আবারো দেশে লকডাউন তথা বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এতে দেশের অনেক মানুষ তাদের কর্ম হারিয়েছেন। এই অবস্থায় কর্মহীন মানুষদের সহায়তায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় ৫৭২ কোটি ৯ লাখ ২৭ হাজার টাকা বরাদ্দ দিয়েছে।

jobless people bangladesh donationকর্মহীনদের সহায়তায় বরাদ্দ ৫৭২ কোটি টাকা, ফাইল ছবি

আজ বৃহস্পতিবার সরকারি এক তথ্য বিবরণীতে এ কথা জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, ভিজিএফ (ভালনারেবল গ্রুপ ফিডিং) কর্মসূচির আওতায় প্রায় ১ কোটি ২৪ লাখ ৪১ হাজার ৯০০ পরিবারকে এ আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। প্রত্যেক পরিবারকে ৪৫ টাকা কেজি দরে ১০ কেজি চালের মূল্যের সমান অর্থাৎ প্রতিটি কার্ডের বিপরীতে ৪৫০ টাকা হারে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে।

তথ্য বিরণীতে বলা হয়, মোট ১ কোটি ৯ হাজার ৯৪৯টি ভিজিএফ কার্ডের বিপরীতে ৪৫০ কোটি ৪৪ লাখ ৭৭ হাজার ৫০ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে দেশের ৬৪টি জেলার ৪৯২টি উপজেলার ৮৭ লাখ ৭৯ হাজার ২০৩টি কার্ড এবং ৩২৮টি পৌরসভার জন্য ১২ লাখ ৩০ হাজার ৭৪৬টি কার্ড রয়েছে।

এদিকে, করোনা পরিস্থিতিসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারগুলোর জন্যও বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এসব পরিবারের জন্য তাৎক্ষণিকভাবে খাদ্য সহায়তার জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ১২১ কোটি ৬৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। এর মধ্যে দেশের ৪ হাজার ৫৬৮টি ইউনিয়নের প্রতিটিতে আড়াই লাখ টাকা হারে মোট ১১৪ কোটি ২০ লাখ টাকা মানবিক সহায়তা দেওয়া হবে।

help ministry bdদুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়

এ ছাড়া ৩২৮টি পৌরসভার অনুকূলে মোট ৫ কোটি ৬৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। এর মধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য ২ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ‘বি’ ক্যাটাগরির জন্য দেড় লাখ টাকা এবং ‘সি’ ক্যাটাগরির পৌরসভার জন্য ১ লাখ টাকা হারে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, ৭ লাখ টাকা হারে ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর, গাজীপুর এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, ময়মনসিংহ, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, বরিশাল এবং সিলেট সিটি করপোরেশনের জন্য ৫ লাখ টাকা হারে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

আবার দেশের ৬৪টি জেলার ডিসিদের (জেলা প্রশাসক) অনুকূলে ‘এ’ ক্যাটাগরির জন্য ২ লাখ টাকা ‘বি’ ক্যাটাগরির জন্য দেড় লাখ টাকা এবং ‘সি’ ক্যাটাগরির জন্য ১ লাখ টাকা হারে মোট ১ কোটি ৭৭ লাখ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।