advertisement
আপনি দেখছেন

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। আর প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে তার ১০ দিন পর ১৮ মার্চ। প্রথম কয়েক মাস সংক্রমণ ও মৃত্যু বাড়লেও পরে তা কমতে থাকে। তবে বছর ঘুরে ফের চলতি বছরের মার্চেই বাড়তে থাকে ভাইরাসটির সংক্রমণ ও মৃত্যু। সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী দেশে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে ১০ হাজার ৮১ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

coronaকরোনায় ১৫ দিনে গড় মৃত্যু ৬৯, প্রতীকী ছবি

এদিকে, শুধু চলতি এপ্রিল মাসের ১৫ দিনে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৩৫ জন মানুষ। অর্থাৎ গড়ে প্রতিদিন ৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কোভিড-১৯ বিষয়ক ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্য থেকে এ কথা জানা গেছে।

জানা যায়, চলতি এপ্রিল মাসের প্রথম ১৫ দিনের মধ্যে শুধু গত ২ এপ্রিল ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া বাকি ১৪ দিনের প্রতিদিন ৫০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। দেশে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড তৈরি হয়েছে এ মাসেই।

গতকাল বুধবার (১৪ এপ্রিল) সর্বোচ্চ ৯৬ জনের মৃত্যু হয়। আবার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে আজ বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল)। এদিন ৯৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। গেল বছর করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ডটি ৬৪ জনের। যা ঘটে ওই বছরের ৩০ জুন।

cv deat graph bangladeshগত ১৫ দিনে করোনায় মৃত্যুর চিত্র, ১৪ এপ্রিল সর্বোচ্চ ৯৬ জনের মৃত্যু

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বৃহস্পতিবারের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৭ হাজার ৩৬২ জন। সর্বোচ্চ করোনা রোগী শনাক্তের রেকর্ডও তৈরি হয়েছে চলতি এপ্রিল মাসেই। গত ৭ এপ্রিল ৭ হাজার ৬২৬ জনকে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়। যা এ পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত।