advertisement
আপনি দেখছেন

চলতি বছরের জানুয়ারিতে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় ২১ হাজার ৬২৯ জন। এই সংখ্যা এপ্রিলে লাখ ছাড়িয়ে জুনে পৌঁছায় ১ লাখ ১২ হাজার ৭১৮ জনে। বর্তমান জুলাই মাসের প্রথম ৭ দিনের মধ্যে ৬ দিনেই শনাক্তের সংখ্যা ৫৩ হাজার ১৪৮ জনে দাঁড়িয়েছে। এই ধারা অব্যাহত থাকলে এপ্রিল-জুনকে ছাড়িয়ে যাবে, যা এ বছরের মধ্যে এক মাসে শনাক্ত সর্বোচ্চ হতে পারে।

dr nazmul islamডা. নাজমুল ইসলাম, ফাইল ছবি

আজ বুধবার নিয়মিত ভার্চুয়াল বুলেটিনে এমন আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম। সরকারি বিধিনিষেধ মেনে না চললে রোগী সংখ্যা অস্বাভাবিক বাড়বে, যা ফের চ্যালেঞ্জ তৈরি করবে বলে জানান তিনি।

গত এক সপ্তাহের করোনায় মৃত্যুর চিত্র তুলে ধরে ডা. নাজমুল ইসলাম জানান, ৩০ জুন ১১৫ জন, ১ জুলাই ১৪৩ জন, ২ জুলাই ১৩২ জন, ৩ জুলাই ১৩৪ জন, ৪ জুলাই ১৫৩ জন, ৫ জুলাই ১৬৪ জন ও ৬ জুলাই ১৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

health departmentস্বাস্থ্য অধিদপ্তর, ফাইল ছবি

করোনার চিকিৎসা দেয়া হাসপাতালগুলোতে শয্যা ও জনবল বাড়ানোর বিষয়ে মনোযোগ দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। পরিস্থিতি বিবেচনা করে ফিল্ড হাসপাতাল তৈরির সম্ভাবনাও যাচাই করছে সরকার।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরো ১১ হাজার ১৬২ জনকে করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। যা এখন পর্যন্ত একদিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শনাক্ত। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ৭৭ হাজার ৫৬৮।

এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ২০১ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে, যা দেশে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। এর আগে দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যু ছিল ১৬৪ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১৫ হাজার ৫৯৩।