advertisement
আপনি দেখছেন

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহায় কথিত ‘জঙ্গি হামলার’ প্রস্তুতি রয়েছে বলে জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। তবে সম্ভাব্য হামলা প্রতিরোধে পুলিশও সতর্ক আছে বলে জানায় সংস্থাটি। আজ মঙ্গলবার ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান কমিশনার শফিকুল ইসলাম।

dmp logoডিএমপির লোগো

‘জঙ্গিদের’ হামলার সক্ষমতা বেড়েছে, বোমা বানানোর সক্ষমতাও উন্নত করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে তাদের তৎপরতা বেড়েছে। তবে ঈদে হামলা হবে, এটা মনে করছি না আমরা। তারপরেও সতর্ক রয়েছে পুলিশ।

ডিএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম বলেন, আমি দায়িত্ব নেয়ার আগে ঢাকার ৫টি পুলিশ চেকপোস্টে বোমা হামলা হয়। সেগুলো কম শক্তিশালী হওয়ায় বড় ক্ষতি হয়নি। সম্প্রতি উদ্ধার হওয়া বোমাগুলো খুবই শক্তিশালী, যা বিস্ফোরিত হলে সবকিছু ম্যাসাকার হয়ে যেতো।

dmp commissioner shafikul islamডিএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম, ফাইল ছবি

প্রশিক্ষিত নতুন লোক নিয়োগের কারণে এই সক্ষমতা বাড়তে পারে- এমন ধারণা প্রকাশ করে তিনি বলেন, সেজন্যই জঙ্গিদের প্রস্তুতি আছে বলছি। কেননা, করোনাকালীন বিধিনিষেধের কারণে এখন মানুষ বাইরে বেরুনোর সুযোগ কম পাচ্ছে ফলে অনেকেই ইন্টারনেটে নানা ওয়েবসাইটে প্রবেশ করছে এবং দেখতে দেখতে এক সময় ফাঁদে পড়ছে।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশের নজরদারির কমতি নেই উল্লেখ করে শফিকুল ইসলাম বলেন, এ জন্যই বড় কোনো ঘটনা ঘটে না। প্রতিবেশী ভারতে গ্রেপ্তার ৩ জন জঙ্গির জিহাদের জন্য বাংলাদেশ ত্যাগের তথ্য জানত পুলিশ। সে তথ্য যথাস্থানে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, শত চেষ্টার পরেও মানুষকে সুরক্ষার ব্যাপারে কাঙ্ক্ষিত মাত্রায় সচেতন করা যাচ্ছে না। ঈদে নগর ছাড়া মানুষদের বাসায় চুরি ঠেকাতে তালিকা করে সম্ভাব্য চোরদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।