advertisement
আপনি দেখছেন

বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য, এমপি, ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেছেন, ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি ও ই-অরেঞ্জের কারণে যারা প্রতারিত হয়েছেন, তাদের টাকা সরকারকে ফেরত দিতে হবে। আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে এ দাবি করেন তিনি।

rumin farhana parliamentসংসদে বক্তব্য দিচ্ছেন রুমিন ফারহানা, ফাইল ছবি

বিএনপি সমর্থিত সংরক্ষিত আসনের এই এমপি বলেন, ইভ্যালি ও ই-অরেঞ্জের মতো প্রতিষ্ঠান সরকারের গাফিলতির কারণেই ব্যবসার নামে প্রতারণা করে হাজার কোটি টাকা লুট করেছে। এগুলোতে যারা টাকা বিনিয়োগ করে প্রতারিত হয়েছেন, তাদের টাকা সরকারকে ফিরিয়ে দিতে হবে। পরে সরকার ওই সব প্রতিষ্ঠান থেকে টাকা আদায় করবে।

ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জ যখন ব্যবসা শুরু করে তখনই বোঝা গিয়েছিল যে, তারা প্রতারণা করবে। কারণ অর্ধেক দামে পণ্য বিক্রির অফার দিয়েছে তারা। অনেক মানুষ এতে বিনিয়োগ করে ফেলেছে। হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে তারা এখন আর পণ্য দিচ্ছে না। শুধু মানুষকে তো আর দোষ দিলে চলবে না। প্রতিষ্ঠানগুলো যে গোপনে ব্যবসা করেনি, সেটাও তো সত্য।

evaly and e orange logoইভ্যালি ও ই-অরেঞ্জের লোগো

তিনি আরও বলেন, ব্যবসা করার জন্য তারা যে পরিমাণ বিজ্ঞাপন দিয়েছে, তাতে সরকারের নীতিনির্ধারকদের বিষয়টি অজানা থাকার কথা নয়। এমনকি তারা ক্রিকেট দলের স্পন্সরও হয়েছিল। অন্য সবকিছু যদি বাদও দেই এবং শুধু যদি প্রতিযোগিতা আইনের কথা ধরি— তাহলে এ ধরনের ব্যবসা চলতে পারে না। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে এদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থাই নেয়া হয়নি।