advertisement
আপনি পড়ছেন

গেল নভেম্বর মাসে দেশে মোট ৩৭৯টি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে ৪১৩ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন ৫৩২ জন। নিহতের মধ্যে ৫৮ জন শিশু এবং ৬৭ জন নারী রয়েছেন। রোড সেফটি ফাউন্ডেশন নামের একটি সংস্থা তাদের মাসিক প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরেছে। এ ছাড়া সারাদেশে এই সময়ে ৫৪ জন শিক্ষার্থী সড়কে প্রাণ হারিয়েছেন।

natar dame students gulistan protestনটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসানের মৃত্যুর প্রতিবাদে রাজধানীর গুলিস্তানে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, সাম্প্রতিক ছবি

আজ শনিবার, ৪ ডিসেম্বর, প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সদ্য সমাপ্ত নভেম্বর মাসের ৩০ দিনে ৭টি নৌ-দুর্ঘটনায় ৯ জন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া ৫ জন নিখোঁজ রয়েছেন। ১১টি রেলপথ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১৩ জন। আহত হয়েছেন আরো ২ জন।

রোড সেফটি ফাউন্ডেশন জানায়, দেশের ৭টি জাতীয় দৈনিক, ৫টি অনলাইন নিউজপোর্টাল এবং ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার তথ্যের ওপর ভিত্তি করে এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। দেশের প্রতি মাসের সড়ক দুর্ঘটনার চিত্র নিয়ে নিয়মিত ভিত্তিতে প্রতিবেদন প্রকাশ করে আসছে সংস্থাটি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গেল মাসে সবচেয়ে বেশি দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি ঘটেছে ঢাকা বিভাগে। এই বিভাগে মোট ৮৩টি দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১০৪ জন। সবচেয়ে কম দুর্ঘটনা ঘটেছে বরিশাল বিভাগে। এই বিভাগে মোট ২২টি দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ২৪ জন।

অপরদিকে, একক জেলা হিসেবে সবচেয়ে বেশি দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি ঘটেছে চট্টগ্রাম জেলায়। এখানে মোট ২১টি দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে নিহত হয়েছেন ২৯ জন। আবার সবচেয়ে কম দুর্ঘটনা ঘটেছে লালমনিরহাট জেলায়। জেলাটিতে ২টি দুর্ঘটনা ঘটলেও কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। একই সময়ে রাজধানী ঢাকায় মোট ১৪টি দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১৬ জন।

রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের তথ্যা অনুযায়ী, এর আগের মাস অর্থাৎ অক্টোবরে ৩৪৬টি সড়ক দুর্ঘটনায় মোট ৪০৭ জন নিহত হয়েছিলেন। অর্থাৎ প্রতিদিন গড়ে নিহত হয়েছিলেন ১৩ দশমিক ১২ জন। আর গেল নভেম্বর মাসে গড়ে প্রতিদিন নিহত হয়েছেন ১৩ দশমিক ৭৬ জন। অর্থাৎ মাসের ব্যবধানে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানি বেড়েছে ৪ দশমিক ৮৭ শতাংশ।

এদিকে, রোড সেফটি ফাউন্ডেশন বলছে, সদ্য সমাপ্ত নভেম্বর মাসে সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫৪ জন শিক্ষার্থী সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং নটরডেম কলেজের ২ জন শিক্ষার্থী রয়েছেন।