advertisement
আপনি পড়ছেন

দেশে করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ পরিস্থিতি সামাল দিতে নতুন করে বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে। এ অবস্থায় অর্ধেক জনবল দিয়ে অফিস আদালত চালানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে সরকার। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ্য জানিয়েছেন।

offices by half staffsঅফিস-আদালত চলবে অর্ধেক জনবলে, ফাইল ছবি

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কনফারেন্স রুমে আজ শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি, আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফিং করতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আমরা স্কুল কলেজ বন্ধ করে দিয়েছি। তবে সব কিছুই একেবারে বন্ধ করে দিয়ে আমরা দেশকে কোলাপস করে দিতে পারি না। এ জন্য অর্ধেক জনবল দিয়ে অফিস আদালতে কাজ করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ বিষয়ে শিগগিরই বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হবে এবং কার্যকরও করা হবে।

jahid malek health minister 17সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক

জাহিদ মালেক আরো বলেন, ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে এর আগে ১১ দফা বিধিনিষেধ দেওয়া হয়েছে। আগামী দিনে ভালো থাকতে হলে দেশবাসীকে এগুলো মেনে চলতে হবে। পরিবার, দেশ ও নিজের সুরক্ষার জন্যই এসব বিধিনিষেধ আমাদের মেনে চলতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই।

মন্ত্রী বলেন, আমরা চাই করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকুক। এ জন্য সরকারের ঘোষিত বিধিনিষেধ কার্যকর করতে হবে। বিধিনিষেধ কার্যকর করে থাকে প্রশাসন। এ বিষয়ে তাদের কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আশা করি, সংশ্লিষ্টরা সেসব সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করবেন। তবে সব থেকে বেশি দায়িত্ব জনগণের। নিজেদের সুরক্ষার জন্যই বিধিনিষেধগুলো সবার মেনে চলতে হবে।