advertisement
আপনি পড়ছেন

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে রাজধানীর ছয়টি কোরবানির পশুর হাটে ‘ডিজিটাল পেমেন্ট বুথ’ বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। আজ বুধবার (২৯ জুন) রাজধানীর হোটেল শেরাটনে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ স্মার্ট হাট, ডিজিটাল পশুর হাট’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

cow 1গরুর হাটে ডিজিটাল লেনদেন, ফাইল ছবি

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ‌‘স্মার্ট বাংলাদেশ স্মার্ট হাট’ প্রকল্পের আওতায় ঢাকা উত্তর সিটির আওতাধীন ৬টি পশুর হাটের লেনদেন হবে ডিজিটালি। গাবতলী, বসিলা, আফতাবনগর, ভাটারা, কাওলা ও উত্তরা ১৭ নম্বর সেক্টরের পশুর হাটে ডিজিটাল পেমেন্ট বুথ থাকবে।

ওই হাটগুলোতে পেমেন্ট পার্টনার হিসেবে থাকবে মাস্টারকার্ড, ভিসা ও আমেরিকান এক্সপ্রেস। ডিজিটাল পেমেন্ট বুথ স্থাপন ও পরিচালনার জন্য ছয়টি বাণিজ্যিক ব্যাংক থাকবে।

ব্যাংক এশিয়া, ব্র্যাক ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ, দি সিটি ব্যাংক এবং মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস হিসেবে বিকাশ ও এম-ক্যাশ একযোগে কাজ করবে।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন, এ পাইলট প্রকল্প একদিকে ক্রেতার নগদ অর্থ বহনের ঝুঁকি, নকল বা ছেঁড়া-ফাটা নোটের সমস্যা সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। অন্যদিকে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা কোরবানির পশু বিক্রেতা প্রান্তিক খামারি বা ব্যবসায়ীরা নগদ অর্থ বহন থেকে মুক্তি পাবেন।

অনু্ষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের এডিশনাল ডাইরেক্টর শাহ জিয়াউল হক।