advertisement
আপনি পড়ছেন

আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে সারাদেশেই শুরু হয়ে গেছে পশুর হাট। অন্যদিকে, দীর্ঘদিন স্তিমিত থাকার পর নতুন করে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। এ অবস্থায় কোরবানির হাট পরিচালনার ক্ষেত্রে ইজারাদার, ক্রেতা ও বিক্রেতাদের প্রতি কিছু নির্দেশনা জারি করেছে সরকার। বলা হয়েছে, একটি পশু কিনতে দুজনের বেশি হাটে যাওয়া যাবে না।

sacrificial animal marketকোরবানির পশুর হাট

গতকাল বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) সরকারের পক্ষ থেকে আরও কিছু নির্দেশনা জারি করা হয়। সেখানে বলা হয়েছে, বদ্ধ জায়গায় পশুর হাট বসানো যাবে না। ইজারাদারদের কাছে মাস্ক, সাবান ও জীবণুমুক্তকরণ সামগ্রী রাখতে হবে। বর্জ্য নিষ্কাশনের ব্যবস্থা থাকতে হবে। মাস্ক ছাড়া কোনো ক্রেতা বা বিক্রেতা হাটে অবস্থান করতে পারবে না।

সরকারি নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, একটি পশুর থেকে আরেকটি পশু এমনভাবে রাখতে হবে যেন ক্রেতারা কমপক্ষে তিন ফুট দূরত্ব বজায় রেখে পশু দেখতে পারেন। সব পশু একত্রে হাটে প্রবেশ না করিয়ে ধীরে প্রবেশ করানোর অনুরোধ করা হয়েছে ওই নির্দেশনায়। আরও বলা হয়েছে, অনলাইন থেকে পশু কেনা-বেচার চেষ্টা করতে হবে।