advertisement
আপনি দেখছেন

চলতি বছর একাদশ শ্রেণিতে শিক্ষার্থীদের ভর্তির নীতিমালায় বেশ কিছু পরিবর্তনের পরিকল্পনা করছে সরকার। ইতোমধ্যে এসএমএসের পরিবর্তে শুধু অনলাইনে আবেদন গ্রহণ, ভর্তি নিশ্চয়ন ফি বৃদ্ধি এবং বেশ কয়েকটি কোটা বাতিলের প্রস্তাব রেখে একটি খসড়া নীতিমালাও প্রস্তুত করেছে আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় কমিটি।

admission in hsc

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে আয়োজিত এক সভায় নতুন এ নীতিমালা প্রণয়নের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তারা। এতে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক মো. হারুন অর রশিদ গণমাধ্যমকে জানান, এসএমএসের মাধ্যমে ভর্তি আবেদনে বিভিন্ন রকম ভোগান্তি হয়। তাই চলতি বছর একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুধু অনলাইনে নেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। পাশাপাশি ভর্তি নিশ্চয়ন ফি ১৩০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৩৫ টাকা এবং বিভিন্ন কোটা বাতিলের প্রস্তাব করা হয়েছে।

কোটা বাতিলের বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, চলতি বছর একাদশ শ্রেণির ভর্তিতে পাঁচ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা, শূন্য দশমিক পাঁচ শতাংশ প্রবাসী কোটা এবং শূন্য দশমিক পাঁচ শতাংশ বিকেএসপি কোটা বহাল রেখে অন্য সকল কোটা বাতিলের প্রস্তাব করেছে আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় কমিটি।

তবে অনলাইনে ১০টি কলেজ বা মাদ্রাসা পছন্দ করে আবেদন করার ক্ষেত্রে যে ১৫০ টাকা নেওয়া হতো, তাতে কোনো পরিবর্তন আসছে না বলে জানান তিনি।

অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়ার বিষয়ে এ কর্মকর্তা জানান, শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ১৫০ টাকা ফি দেওয়ার মাধ্যমে পছন্দের ১০টি কলেজ বা মাদ্রাসায় আবেদন করতে পারবেন। পরবর্তীতে বাছাই শেষে যে কলেজ পাবে, তাতে ভর্তি নিশ্চিত করতে ওই শিক্ষার্থীকে আরো ১৩৫ টাকা জমা দিতে হবে। এটাকেই ভর্তি নিশ্চায়ন ফি বলা হচ্ছে।