advertisement
আপনি দেখছেন

দেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্ত রোগী শনাক্তের পর শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে সকল পরীক্ষা আপাতত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (শেকৃবি) কর্তৃপক্ষ। রোববার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদের সভাপতিত্বে আয়োজিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

ser e bangla agriculture university

সভায় দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ে আপাতত সকল পরীক্ষা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সকল ধরনের সভা-সমাবেশ অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা হয়।

দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে শিক্ষার্থীদের আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে সভায় তাদের সতর্ক ও সচেতন থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তীতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানানো হয়।

সভায় বিদেশ থেকে আগত শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে উন্মুক্তভাবে ঘোরাফেরা না করার জন্য অনুরোধ করা হয়। পাশাপাশি তাদের ১৪ দিন নিজ বাসায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য বলা হয়। এছাড়া আপাতত বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদে কোনো তাবলীগ দল যাতে অবস্থান না করে সে বিষয়ে তদারকি করার জন্য মসজিদ কমিটিকে অনুরোধ করা হয়।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সেগুলো হলো- চারপাশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা, বিভিন্ন স্থানে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখার ব্যবস্থা করা এবং সচেতনতামূলক লিফলেট বিলি করা।