advertisement
আপনি দেখছেন

ইতালিতে একদিনের ব্যবধানে আরো এক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার রাত ১০টার দিকে সেখানকার ত্রিয়েসতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

corona italy death2ইতালিতে আরেক বাংলাদেশির মৃত্যু

ওই বাংলাদেশির নাম ফরিদ খান (৬০)। সপ্তাহখানেক আগে শরীরে জ্বর ও কাশি নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। এরপর থেকে পরিবারের সঙ্গে আর যোগাযোগ হয়নি।

তবে করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে নাকি অন্য কোনো কারণে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ওই বাংলাদেশি দীর্ঘদিন ধরে পরিবারসহ ইতালির উত্তর-পূর্ব মনফালকান নামক এলাকায় বসবাস করছিলেন।

এর আগে গত ২০ মার্চ ইতালির উত্তরাঞ্চলীয় লম্বারদিয়া শহরের নিগোয়ারদা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৫৫ বছর বয়সী আরেক বাংলাদেশি।

তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায়। দীর্ঘদিন ধরে তিনি ইতালির মিলান শহরে বসবাস করছিলেন।

ইতালিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনই মৃত্যুর মিছিল বাড়ছে।প্রায় প্রতিদিনই মৃত্যুর নতুন রেকর্ড হচ্ছে। সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৭৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

এ নিয়ে ইতালিতে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৪ হাজার ৮২৫ জন। এই সংখ্যাটা বেড়ে কোথায় গিয়ে ঠেকে তা নিয়ে উদ্বিগ্ন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কারণ প্রতিদিনই দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে চলেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যাও উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে। এ সময়ে মোট ৬ হাজার ৫৫৭ জন নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছে। যা একদিনে আক্রান্তের দিক দিয়ে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। সবমিলিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৫৩ হাজার ৫৭৮ জনে।