advertisement
আপনি দেখছেন

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মালয়েশিয়ায় চলছে লকডাউন। এর কারণে দেশটিতে থাকা ৬০ হাজার বাংলাদেশি শ্রমিক চরম খাদ্য সংকটে ভুগছেন। কুয়ালামপুরে থাকা এক মানবাধিকার কর্মী এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর বিবিসি।

worker in malayshiyaমালয়েশিয়ায় কর্মরত শ্রমিক

হারুন আল রশিদ নামে ওই মানবাধিকার কর্মী বলেন, লকডাউনের কারণে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন প্রান্তে থাকা বাংলাদেশি শ্রমিকরা তাদের সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ করে খাদ্য সংকটের কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, পরিবহন ও চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের কারণে আমরা তাদের কাছে খাবার পৌঁছে দিতে পারছি না।

তিনি আরো বলেন, যেসব শ্রমিক বড় কলকারখানায় কাজ করে থাকেন তারা কোনো সমস্যায় পড়েনি। যারা ছোট ছোট কারখানার শ্রমিক ও লেবার কনট্রাকটরদের অধীনে কাজ করেন তারা বেশ সংকটে আছে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, মালয়েশিয়ায় এই মুহূর্তে পাঁচ লক্ষাধিক বাংলাদেশি শ্রমিক অবস্থান করছেন। এদের কেউ বৈধ আবার কেউ অবৈধ। লকডাউনের কারণে তারা ঠিক কী অবস্থায় আছে তা বলা মুশকিল।

worker in malayshiya01মালয়েশিয়ায় কর্মরত শ্রমিক

তবে হারুন আল রশিদের মতে প্রায় ৬০ হাজারের মতো বাংলাদেশি শ্রমিক আছেন যারা খাদ্য সংকটের মধ্যে দিনযাপন করছেন।

কুয়ালামপুরের এই মানবাধিকার কর্মী বলেন, চলতি এপ্রিলের শুরুতে আমরা এ বিষয়ে একটি পরিসংখ্যান তৈরি করেছি। সেখানে দেখা গেছে প্রায় ৬০ হাজার বাংলাদেশি শ্রমিক আমাদের কাছে খাদ্য সহায়তার জন্যে আবেদন করেছেন। এদের অধিকাংশই কুয়ালামপুর ও সেলাঙ্গর রাজ্যে অবস্থান করছেন। এছাড়া জোহর বারু এবং পেনাঙেও কিছুসংখ্যক বাংলাদেশি রয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, লকডাউন শুরু হওয়ার কিছুদিন এরা মালয়েশিয়ার স্থানীয় কিছু এনজিও থেকে সাহায্য পেয়েছে। কিন্তু পরিবহন ও চলাচলে নিষেধাজ্ঞার কারণে এখন তা সম্ভব হচ্ছে না।

sheikh mujib 2020