advertisement
আপনি দেখছেন

সংযুক্ত আরব আমিরাতে চীনের একটি প্রতিষ্ঠানের তৈরি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের তৃতীয় বা চূড়ান্ত ধাপের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন রাহাত আহমেদ রাফি নামে এক বাংলাদেশি তরুণ। সম্প্রতি নিজের দেহে ভ্যাকসিন নেয়ার অভিজ্ঞতা বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তিনি।

cv vaccine uae bdকরোনার ভ্যাকসিন নিচ্ছেন বাংলাদেশি তরুণ রাহাত আহমেদ রাফি

জানা গেছে, চীনা কোম্পানি সিনোফার্মের সঙ্গে যৌথভাবে আমিরাতের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও গ্রুপ-৪২ নামের একটি কোম্পানি ভ্যাকসিনটির তৃতীয় বা চূড়ান্ত ধাপের পরীক্ষা শুরু করেছে। এতে প্রায় সাত হাজারের বেশি স্বেচ্ছাসেবী ইতোমধ্যে নাম তালিকাভুক্ত করেছেন। তবে সবমিলিয়ে ১৫ হাজার মানুষের ওপর এই পরীক্ষা চালানো হবে।

নিজের দেহে ভ্যাকসিন নেয়ার অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে রাহাত আহমেদ রাফি বলেন, তেমন একটা ভয় লাগেনি। তাছাড়া মানুষ মরণশীল। আজ হোক কাল হোক সবাইকেই মারা যেতে হবে। তাই এর মধ্যে মানুষের কল্যাণের জন্য কিছু করতে পারাটাই আমার সার্থকতা।

রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে সেখানকার করোনা টেস্টিং সেন্টারে গত দুই মাস ধরে কাজ করছেন ২৬ বছর বয়সী এই বাংলাদেশি। যারা টেস্ট করাতে আসেন, তাদের নাম-ঠিকানা কম্পিউটারে তালিকাভুক্ত করাই মূলত তার কাজ। এর মধ্যেই একদিন জানতে পারেন, করোনার ভ্যাকসিন পরীক্ষায় স্বেচ্ছাসেবী নেয়া হচ্ছে।

corona us vaccine

সিলেটে জন্ম নেয়া বাংলাদেশি এই তরুণ বলেন, স্বেচ্ছাসেবী চাওয়া হচ্ছে জানার পরই ইন্টারনেটের মাধ্যমে নিজের নাম সেখানে তালিকাভুক্ত করে ফেলি। এর কিছুদিন পর প্রত্যেক স্বেচ্ছাসেবীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়। গত ২৪ জুলাই ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ শরীরে প্রয়োগ করা হয়েছে। ২১ দিন পর আবার দ্বিতীয় ডোজ দেবে বলে জানিয়েছে।

ভ্যাকসিন নেয়ার পর হালকা মাথা ঘোরানো ছাড়া অন্য কোনো সমস্যা হচ্ছে না জানিয়ে তিনি বলেন, প্রতিদিনই তারা আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। ভ্যাকসিন নেয়ার পর থেকে কোনো অসুবিধা হচ্ছে কি না, বর্তমানে কেমন লাগছে, মূলত এগুলোই জানতে চান। সার্বক্ষণিক তারা আমাদের ফলোআপে রাখছেন। পাশাপাশি তিন দিন পর পর তাদের অফিসে গিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতেও বলেছেন।

আগামী এক বছর এভাবে তাদের ফলোআপে রাখা হবে। আপাতত ভ্যাকসিন গ্রহণকারীদের অন্যদের থেকে আলাদা থাকার জন্য দেশটির স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে বলে দেয়া হয়েছে। তবে তিনি ছাড়া আর কোনো বাংলাদেশি এই পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন বলে তার জানা নেই।

sheikh mujib 2020