advertisement
আপনি দেখছেন

মালয়েশিয়ায় গ্রেপ্তার বাংলাদেশি অভিবাসী যুবক রায়হান কবিরের মুক্তি দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। দেশটিতে অভিবাসীদের নানা সমস্যা নিয়ে সম্প্রতি আল জাজিরা টেলিভিশনকে একটি সাক্ষাৎকার দেন তিনি। এর পরই দেশটির কর্তৃপক্ষ তার ওপর ক্ষেপে যায়। গ্রেপ্তারের পর থাকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে তাকে কালো তালিকাভুক্ত করার ঘোষণাও দিয়েছে দেশটি।

raihan kabirরায়হান কবির

মানবাধিকার সংস্থাটি বলছে, অভিবাসীদের বিরুদ্ধে সরকারের নীতির সমালোচনার করার প্রতিশোধ হিসেবেই বাংলাদেশি শ্রমিক রায়হান কবিরকে গ্রেপ্তার করেছে মালয়েশিয়া।

জানা যায়, সম্প্রতি মালয়েশিয়ায় অভিবাসীদের ওপর সরকারের নিপীড়ন নিয়ে আল জাজিরা টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারটি গত ৩ জুলাই প্রচার করা হয়। এর পর গত ২৪ জুলাই তাকে গ্রেপ্তার করে মালয়েশিয়া পুলিশ। এর পর তাকে ১৪ দিনের রিমান্ডে নেয় মালয়েশিয়ার পুলিশ।

human rights logoহিউম্যান রাটস ওয়াচ

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এশিয়া বিষয়ক উপ-পরিচালক ফিল রবার্টসন এক বিবৃতিতে বলেছেন, মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষ রায়হান কবিরের বিরুদ্ধে যে পদক্ষেপ নিয়েছে, তা সব অভিবাসী শ্রমিকদের অধিকার হরণের মতো ঘটনায় কথা বলার বিরুদ্ধে একটি শীতল বার্তা।

তিনি বলেন, তথ্যচিত্রের একজন বক্তব্যদাতাকে গ্রেপ্তার করার ঘটনা বাক স্বাধীনতা ও গণমাধ্যমের ওপর নগ্ন হামলা।

এর আগে দেশটির অভিবাসন বিষয়ক পুলিশের মহাপরিচালক জানান যে, রায়হান কবিরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে এবং আজীবনের জন্য কালো তালিকাভুক্ত করা হবে। যাতে তিনি আর মালয়েশিয়ায় ঢুকতে না পারেন।

sheikh mujib 2020