advertisement
আপনি দেখছেন

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় দেশটিতে জরুরি সহায়তা সামগ্রী পাঠিয়েছে বাংলাদেশ। স্থানীয় সময় সোমবার দেশটির সরকারের হাতে এসব সহায়তা সামগ্রী হস্তান্তর করে সেখানে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস। পরে দূতাবাসের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

beirut explosion 01বিস্ফোরণের পর বৈরুত- ফাইল ছবি

জরুরি সহায়তা সামগ্রীর মধ্যে ছিলো ৯ টন খাদ্য এবং ২ টন ওষুধসহ জরুরি চিকিৎসা সামগ্রী। লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মো. জাহাঙ্গীর আল মুস্তাহিদুর রহমান দেশটির সরকার মনোনীত স্থানীয় প্রতিনিধিদের কাছে এসব সামগ্রী হস্তান্তর করেন। এ সময় লেবাননের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, ইউনিফিল ও বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তাবৃন্দ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর একটি পরিবহন বিমানের মাধ্যমে এসব জরুরি সহায়তা সামগ্রী বৈরুতের রফিক হারিরি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাঠানো হয়। জরুরি সহায়তা সামগ্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ৪ জন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, সেনাবাহিনীর একজন কর্মকর্তা ও বিমান বাহিনীর ১২ জন ক্রু দেশটিতে যান।

beirut explosion 7বিস্ফোরণের পর বৈরুত- ফাইল ছবি

গত ৪ আগস্ট স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠে লেবাননের রাজধানী বৈরুত। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ২০০ জন ছাড়িয়ে গেছে। আহত হয়েছেন ৬ হাজারের বেশি মানুষ। গৃহহীন হয়েছেন অন্তত ৩ লাখ বাসিন্দা।

এ ঘটনায় ৫ বাংলাদেশি প্রবাসীও প্রাণ হারিয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ১০০ জনের বেশি। রাসায়নিক গুদাম থেকে ঘটা এ বিস্ফোরণে বৈরুত বন্দরে থাকা বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর একটি জাহাজ ‘বিজয়’ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া ওই জাহাজ থাকা ২১ জন নৌ বাহিনীর সদস্য আহত হয়েছেন।