advertisement
আপনি দেখছেন

কুয়েত পার্লামেন্টে অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়ে একটি পরিকল্পনা পাস হয়েছে এবং ট্রান্সফার ভিসা বাতিল ঘোষণা করেছে। দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম কুয়েত টাইমসের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে আল আরাবিয়া।

kuwait expat planঅভিবাসী নীতি নিয়ে এবার কুয়েত পার্লামেন্টে পরিকল্পনা পাস

গত ৬ মাস ধরে এই পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে কুয়েত সরকার। যা দেশটিতে বসবাসরত অধিকাংশ অভিবাসী শ্রমিকের ওপর কার্যকর করা হবে। দেশটিতে স্থানীয় জনগণের তুলনায় বেশি অভিবাসী শ্রমিক হওয়ার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

আল আরাবিয়া বলছে, পার্লামেন্টে পাস হওয়া এই পরিকল্পনা অনুযায়ী ১০টি আলাদা বিভাগে কুয়েত থেকে অভিবাসী শ্রমিক ছাঁটাই করা হবে। ছাঁটাই হতে যাওয়া অধিকাংশ শ্রমিক মেডিকেল, শিক্ষা, গৃহস্থলীর কাজের লোক এবং জিসিসি ভিসাধারী থেকে হবে।

kuwait parliament 1কুয়েত পার্লামেন্ট

পরিকল্পনা অনুযায়ী ট্রান্সফার ভিসার মাধ্যমেও কেউ কুয়েতে থাকার সুযোগ পাচ্ছে না। এই ভিসানীতি বাতিল করেছে সরকার। যার কারণে এক কাজ হতে অন্য কাজের জন্য কেউ ভিসার আবেদন করতে পারবে না।

পার্লামেন্টের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অভিবাসী নীতি বাস্তবায়নের জন্য একটি জাতীয় কমিটি গঠন করা হবে। যার নাম দেয়া হয়েছে ন্যাশনাল কমিটি ফর রেগুলেটিং এন্ড এডমিনিস্টারিং কুয়েত ডেমোগ্রাফি।

এর আগে গত সপ্তাহে এক ঘোষণায় কুয়েত সরকার জানায়, ইউনিভার্সিটি ডিগ্রি ছাড়া ৬০ বছরের ঊর্ধ্ব কেউ ভিসার আবেদন করতে পারবে না। আর ৬০-ঊর্ধ্ব যারা বর্তমানে কুয়েতে আছে তাদের ভিসার মেয়াদ ৩১ আগস্টের পর বাড়ানো হবে না।

আল আরাবিয়া বলছে, কুয়েত পার্লামেন্টে পাস হওয়া এই পরিকল্পনার কারণে দেশটি থেকে ৩ লাখ ৬০ হাজারের বেশি অভিবাসী শ্রমিক নিজ দেশে ফিরতে বাধ্য হবে। এদের মধ্যে দেড় লাখেরও বেশি শ্রমিকের বয়স ৬০ ঊর্ধ্ব।