advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের কয়েক শ অভিবাসন প্রত্যাশীর একটি দল ক্রোয়েশিয়ার সীমান্তবর্তী বসনিয়ান জঙ্গলে অবস্থান করছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত দেশগুলোতে প্রবেশের লক্ষ্যেই তারা এ জঙ্গলে অবস্থান নিয়েছে। বাংলাদেশ ছাড়াও এ অভিবাসন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছে পাকিস্তান, আলজেরিয়া ও মরক্কোর নাগরিক।

bangladeshi in basnia 2বসনিয়ার জঙ্গলে অবস্থান নেওয়া বাংলাদেশিদের একাংশ। ছবি- সংগৃহীত

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, গতকাল বুধবার সকালে ক্রোয়েশিয়ার সীমান্তবর্তী বসনিয়ার ভেলিকা ক্লাদুসা শহরের কাছে একটি জঙ্গলে অভিবাসন প্রত্যাশীদের এ দলটির খোঁজ পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে, সম্প্রতি অভিবাসন আইন কঠোর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইইউ। এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের আগেই অভিবাসন প্রত্যাশীরা সেখানে প্রবেশ করার লক্ষ্যে এমন চেষ্টা চালাচ্ছে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের প্রায় ৫ শ তরুণের এ দলটি জঙ্গলের একটি পরিত্যক্ত কারখানা ভবনে আশ্রয় নিয়েছে। তারা সেখানে প্রচণ্ড ঠাণ্ডার মধ্যে কার্ডবোর্ড, পলিথিন ও গাছের ডাল দিয়ে তাঁবু বানিয়ে অবস্থান করছেন। ঠাণ্ডার হাত থেকে বাঁচতে গাছের ডাল দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে রেখেছেন। অপেক্ষা শুধু সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার।

bangladeshi in basniaবসনিয়ার জঙ্গলে অবস্থান নেওয়া বাংলাদেশিদের একাংশ। ছবি- সংগৃহীত

শত শত অভিবাসন প্রত্যাশীদের একজন বাংলাদেশি তরুণ মোহাম্মদ আবুল। তিনি বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, তারা এখানে প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় খুবই মানবেতর অবস্থায় রয়েছেন। এখানে থাকার জন্য কোনো ঘর নেই, পান করার মতো পানি নেই, প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার মতো কোনো বাথরুম নেই। এমনকি কোনো চিকিৎসা সেবারও ব্যবস্থা নেই। তারা উন্নত জীবনের আশায় সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার জন্য এত কষ্টের মধ্যেও অবস্থান করছেন।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, দারিদ্র্যপীড়িত বসনিয়াকে আগে ট্রানজিট রুট হিসেবে এড়িয়ে চলতো অভিবাসন প্রত্যাশীরা। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে এই রুটটি তাদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

sheikh mujib 2020