advertisement
আপনি দেখছেন

ডাক্তারের মৃত সার্টিফিকেট পাওয়া একটি লাশ হঠাৎ করেই জীবিত হয়ে উঠেছে ভারতের একটি হাসপাতালের মর্গে। বিষয়টি নিয়ে বেশ শোরগোল পড়ে গেছে সমগ্র ভারতে। যে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেছিলেন তার বিষয়ে তদন্তেরও দাবী উঠেছে দেশটিতে।

died man

কিছুদিন আগে স্থানীয় একটি বাসস্ট্যান্ড অচেতন অবস্থায় পড়ে ছিলো ৫০ বছরের এই ব্যক্তি। বিষয়টি পুলিশকে জানালে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে নিকটবর্তী লোকমান্য তিলক মিউনিসিপ্যাল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। এই হাসপাতালেরই এক কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে দেখার পর মৃত বলে ঘোষণা করেন।

তারপরে ওই মৃতদেহকে কিছু সময় মর্গে রেখে যখন ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তখনি হাসপাতালের কর্মীরা দেখতে পান লাশের নিঃশ্বাস সচল। তার পেটও উঠানামা করছে। ফলে কর্মীরা লাশটি ময়না তদন্তের পরিবর্তে নিয়ে যান নাক কান গলা বিভাগে। 

ঘটনাটি সাথে সাথেই পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এরপর পুলিশ ওই হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে চরমভাবে দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগ এনে একটি মামলা করে। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মৃত মানুষের ভান করে থাকা লোকটি আসলে একজন নেশা গ্রহণকারী। তার মুখভর্তি মাছির লার্ভা লেগেছিল। যা মৃত মানুষের চিহ্ন হিসেবে সবাই মনে করে থাকে। ডাক্তার এ দিকটা বিবেচনা করেই তাকে মৃত বলে ঘোষণা দিয়েছিল!

 

আপনি আরো পড়তে পারেন 

চোখে ড্রপের পরিবর্তে সুপার গ্লু!

গেম খেলেই কোটিপতি!

হাঁচির কারণে জীবন অতিষ্ট