advertisement
আপনি দেখছেন

মানুষই কখনো চায় না তার শরীরে কোন পরজীবী বাসা বাঁধুক। জোঁক তো কোন অবস্থাতেই নয়। তবে এমনই একটি অস্বাভাবিক ঘটনা ঘটেছে চীনের ইউপিং কাউন্টি হাসপাতালে। যেখানে এক বৃদ্ধের নাক ও গলার ভেতর থেকে বের করা হয়েছে দুটো জীবন্ত জোঁক।

joke in handজোঁক- প্রতীকী ছবি

জানা যায়, পাহাড়ি ঝর্ণা থেকে জল পান করেছিলেন ওই বৃদ্ধ। তারপর থেকেই শুরু হয় তার সর্দি-কাশি। টানা দুমাস ধরে সেটি ভালো না হয়ে বরং শেষের দিকে কাশির সঙ্গে রক্ত বেরতে শুরু করে। এরপরই ইউপিং কাউন্টি হাসপাতালের চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন ৬০ বছর বয়সী ওই বৃৃদ্ধ। সেখানেই পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে দেখা যায় তার নাক এবং গলার ভিতর জাঁকিয়ে বসে আছে দুটি জীবন্ত জোঁক। যার জন্যই তার এই অবস্থা।

হাসপাতালের চিকিৎসক রাও গুয়াংগং জানান, প্রাথমিক পরীক্ষা ওই বৃদ্ধের শরীরে আস্বাভাবিক কিছু ধরা পড়েনি। পরে তার শরীরের ফুসফুসসহ বায়ু নির্গমনের পথগুলিতে ব্রঙ্কোস্কোপি (বিশেষ পরীক্ষা) করেন চিকিৎসকরা। সেই পরীক্ষায় দেখা যায় বৃদ্ধের গলার ভেতর এবং ডান নাকের ফুটোর ভেতর দুটি জীবন্ত জোঁক বসে আছে।

তিনি আরো জানান, পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে বৃদ্ধকে অ্যানেস্থেশিয়া দিয়ে অজ্ঞান করা হয়। এরপর টুইজার দিয়ে টেনে জোঁক দুটিকে বৃদ্ধের শরীর থেকে বের করা হয়। গত দুই মাস ধরে বৃদ্ধের শরীরে বাস করায় জোঁক দুটি রক্ত পান করে বেশ মোটাসোটা হয়ে গেছে।

গুয়াংগং আরো জানান, দুই মাস আগে যখন ওই বৃদ্ধ পাহাড়ি ঝর্ণা থেকে পানি পান করছিলেন তখনই জোঁক দুটি তার নাক দিয়ে গলার ভিতর চলে যায়।