advertisement
আপনি দেখছেন

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সবকিছুই বদলে যায়। পরিবর্তন হয়। প্রতিটি মানুষ তার জীবনের শুরু থেকে আজকের দিনটিকে মিলিয়ে দেখলে অনেক পরিবর্তন দেখতে পাবে। হারানো সেই দিনগুলোর মতো আজকের দিনটি আর নেই। সবকিছুই যেন সময়ের চাকার সঙ্গে ঘুরে যাচ্ছে। আমাদের শৈশবের সোনালী দিনগুলোর দিকে তাকালে দেখবো অতীতের সঙ্গে বর্তমানের বিস্তর ফারাক। সবকিছুতেই লেগেছে পরিবর্তনের ছোঁয়া।

goldsmith teaches the holy Quran

বর্তমান সময়ে মানুষের চিন্তা-চেতনাও অনেক বদলে গেছে। সময়ের এ পরিবর্তনে একজন মুমিনের জীবনেও কি পরিবর্তন প্রয়োজন, নাকি সবকিছুই চলবে আগের নিয়মেই? আমি মনে করি, মুমিন হিসেবে আমাদের জীবনেও পরিবর্তন প্রয়োজন। আমাদের সবকিছুই হতে হবে কোরআন-সুন্নাহ অনুযায়ী।

বর্তমান সময় হলো বিজ্ঞানের উৎকর্ষতার সময়। আধুনিক বিজ্ঞানের যেমন রয়েছে ইতিবাচক দিক, ঠিক তেমনি রয়েছে নেতিবাচক দিকও। সবকিছু সহজলভ্য হওয়ায় মানুষ এখন আর কষ্ট করতে চায় না। মোবাইলের বাটন টিপলেই ইন্টারনেটের কল্যাণে পাওয়া যায় অনেক জানা-অজানা তথ্য। খুব সহজেই পাওয়া যায় উদ্ভূত সমস্যার সহজ সমাধান।

কিন্তু একজন মুমিন হিসেবে আমাদের সবকিছু খুব ভেবে চিন্তে করা উচিত। সহজলভ্য হলেই সবকিছু লুফে নেয়া ঠিক নয়। যাচাই করে নিতে হবে কোরআন ও সুন্নাহর দৃষ্টিতে।

আমরা এমন এক মহাগ্রন্থের অনুসারী যাতে রয়েছে সব সমস্যার সহজ-সঠিক সমাধান। এমন কোন বিষয় নেই যার দিকনির্দেশনা এই কোরআনে বলা হয়নি। আল্লাহ তায়ালা এরশাদ করেন, ‘নিশ্চয়ই এই কোরআন সবচেয়ে ভালো পথ দেখায়।’ সূরা ইসরা, আয়াত ০৯।

এজন্য প্রয়োজন বেশি বেশি কোরআন নিয়ে গবেষণা করা। তাহলেই জানা যাবে এ সময়ের অনেক অজানা প্রশ্নের জবাব ও দিকনির্দেশনা।

এর সাথে যে বিষয়টি অতি জরুরি তা হলো রাসুল (সা.) এর সিরাত সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করা। সিরাতে রাসুল (সা.) হল জীবন্ত কোরআন। একদিন উম্মুল মুমিনিন হজরত আয়েশা (রা.) এর কাছে রাসুল (সা.) এর স্বভাব-চরিত্র কেমন এ সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়েছিল। তখন তিনি জবাব দিলেন, ‘কানা খুলুকুহুল কোরআন। রাসূল (সা.) এর আখলাক বা চরিত্র হলো জীবন্ত কোরআন।’ অর্থাৎ কোরআনের সব বিষয়ের বাস্তব প্রয়োগ পাওয়া যাবে রাসূল (সা.) এর পবিত্র সিরাতে।

সময়ের পরিবর্তনের সঙ্গে আমরা আমাদের জীবনেও পরিবর্তন আনব, তবে সে ক্ষেত্রে মানদন্ড থাকবে কোরআন এবং সুন্নাহ। আধুনিকতার নামে ইসলামকে ব্যাকডেটেট বা সেকেলে ভাবার কোন সুযোগ নেই।

আবার ইসলামের কথা বলে আধুনিক প্রযুক্তি এবং জ্ঞান-বিজ্ঞান থেকে পিছিয়ে থাকাও সত্যিকার মুমিন-মুসলমানের পরিচয় নয়।

ইসলাম চির আধুনিক ধর্ম। অতীতে মুসলমানরা ছিলো চির আধুনিক জাতি। আজ মুসলমানরা কোরআন ভুলে যাওয়ার কারণে নিজেরা যেমন ব্যাকডেটেড হয়ে পড়েছে, তেমনি ইসলামকেও প্রশ্নবিদ্ধ করে ফেলেছে। বিশ্ব মুসলমান কোরআনের পথে ফিরে আসলে ইসলামকে সেকেলে ধর্ম বলার সাহস কারোই হবে না।