advertisement
আপনি দেখছেন

যুক্তরাজ্যের একদল গবেষক বলছেন, দৈনিক ছয় থেকে ১০ বার হাত ধুলে করোনাভাইরাসের মতো সংক্রামক ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সুযোগ কম। যুক্তরাজ্যের ওয়েলকাম ওপেন রিসার্চ এন্ড এওয়েটিং পিয়ার রিভিউ এই গবেষণাটি করেছে।

hand washingপ্রতীকী ছবি

বিবিসির বরাতে জানা যায়, করোনাভাইরাস হল সেসব গোত্রের ভাইরাস যাদের কারণে সাধারণ সর্দি হয়। এছাড়া ভাইরাস ভেদে অন্যান্য উপশমও দেখা দেয়। এ ধরনের ভাইরাস সাবান ও পানি দিয়েই ধ্বংস করা সম্ভব।

ওয়েলকাম ওপেন রিসার্চ এন্ড এওয়েটিং পিয়ার রিভিউ এক হাজার ৬৬৩ জনের ওপর এক গবেষণা করেছে। সেখানে তারা দেখতে পান, দিনে কেউ ছয় বার বা তারও বেশি বার হাত ধুলে করোনাভাইরাসের মতো সংক্রামক ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সুযোগ কম থাকে। দিনে ১০ বার হাত ধুলে নিরাপদ থাকার সুযোগ আরো বেড়ে যায়।

গবেষণায় যুক্ত থাকা গবেষক ইউনিভার্সিটি অব লন্ডনের লেকচারার ডক্টর সারাহ বেইলি বলেন, হাত পরিষ্কার রাখা একটি ভালো অভ্যাস। এই অভ্যাস সবসময় রাখা উচিত। এতে করে সংক্রামক ভাইরাস সংক্রমণ ঘটাতে পারে না।

hand wash

তিনি বলেন, যদি নিয়ম করে কেউ নির্দিষ্ট সময় পর পর হাত ধুয়ে ফেলে তাহলে সে এবং তার আশপাশের মানুষ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া আটকে দিতে পারে।

যুক্তরাজ্যের গণস্বাস্থ্য বিষয়ক এক কর্মকর্তা বলেন, ২০ সেকেন্ড ধরে দৈনিক হাত ধোয়া করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আটকে দেয়ার অন্যতম শ্রেষ্ঠ একটি উপায়। বিশেষ করে নাক-মুখে হাত দেয়ার আগে বা পরে, হাঁচি, কাশির পর, খাওয়া-দাওয়া ও রান্নার আগে পরে ভালো করে হাত পরিষ্কার করা হলে এই ভাইরাসের আক্রমণ থেকে অনেকাংশেই বেঁচে যাওয়া সম্ভব।