advertisement
আপনি দেখছেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সামনেই ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির ক্যামেরাম্যান ও অন্য সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। আর হামলা চালিয়েছে গণমাধ্যমের ওপর ক্ষিপ্ত ট্রাম্পেরই এক সমর্থক।

trump supporter

বিবিসি বলছে, মেক্সিকো সীমান্তে টেক্সাসের এল পাসো এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। ওই সময় ট্রাম্প মেক্সিকো সীমান্তে বেড়া নির্মাণের পক্ষে প্রচার চালাচ্ছিলেন।

খবরে বলা হয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট যখন বক্তব্য দিচ্ছিলেন তখন ট্রাম্পের এক সমর্থক ক্যামেরাম্যান রন স্কিন ও অন্য সাংবাদিকদের ওপর হামলা চালায়। পরে তাকে এক ব্লগার সরিয়ে নিয়ে যায়।

হামলার শিকার রন স্কিন বলেছেন, তিনি বুঝতেই পারেননি আসলে কী হতে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই গণমাধ্যমের ওপর ব্যাপক ক্ষুব্ধ। বিশেষ করে, যখন তার বিরুদ্ধে কোনো খবর প্রকাশ হয় তখন সেই গণমাধ্যমকে ধুয়ে দেন তিনি।

ট্রাম্প গণমাধ্যমের প্রতি এতটাই আক্রমণাত্মক যে, জাতিসংঘের এক বিশেষজ্ঞ গত আগস্টে তাকে সতর্ক করেন।

সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, বক্তব্যের মধ্যেই ট্রাম্প হামলার ঘটনা নিয়ে বুড়ো আঙ্গুল তুলে দেখান এবং বক্তব্য অব্যাহত রাখেন।

বিবিসির ওয়াশিংটন সংবাদদাতা গ্রে ও’ডঙ্ঘু বলেছেন, নিঃসন্দেহে এটি সহিংস হামলা।

হোয়াইট হাউজের সাবেক কমিউকেশন ডিরেক্টর টুইটারে এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, ‘এই আচরণ আমাদের সঙ্গে মানায় না’।