advertisement
আপনি দেখছেন

টেলিভিশনের টকশোতে দুই রাজনীতিকের মধ্যে প্রথমে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এক পর্যায়ে তা গড়ায় হাতাহাতিতে, চড় পড়ে গিয়ে সাংসদের গালে। এমন ঘটনা ঘটেছে পাকিস্তানে।

slap mps cheek on talk showটক-শোতে সাংসদের গালে চড়

দেশটির টিভি চ্যানেল এক্সপ্রেস নিউজ জানায়, টকশোতে এক পক্ষে ছিলেন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) নেতা ফেরদৌস আশিক আওয়ান। অপর পক্ষে ছিলেন পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) নেতা আব্দুল কাদির খান মান্দোখেল।

‘কাল তাক’ নামক শোতে দুর্নীতি নিয়ে আলোচনার জন্য এই দুই রাজনীতিককে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। অনুষ্ঠানে তাদের বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতির ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

slap mps cheek on talk show 1টুইটারে এক্সপ্রেস নিউজের পোস্ট

খবরে বলা হয়, টকশোতে ফেরদৌস আওয়ানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তোলেন আব্দুল কাদির খান। জবাবে তার কাছে প্রমাণ চান এবং মানহানির মামলা করার হুমকি দেন ফেরদৌস।

এ নিয়ে দুই নেতার মধ্যে তর্কবিতর্ক চলে কিছুক্ষণ। এক পর্যায়ে পাকিস্তান ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির সদস্য (এমএনএ) কাদির খানের গালে চড় মেরে বসেন ফেরদৌস। তারপর শুরু হয় হাতাহাতি।

slap mps cheek on talk show 2টক-শোর আরেকটি দৃশ্য

আকস্মিক এমন ঘটনা তাকিয়ে দেখা ছাড়া কিছুই করতে পারেননি সঞ্চালক জাভেদ চৌহান। অনুষ্ঠনের সঙ্গে জড়িতরা এসে পরিস্থিতি নিয়স্ত্রণে আনেন, ততক্ষণে আরেক দফা হাতাহাতি হয় তাদের মধ্যে।

পাকিস্তান পিপলস পার্টির জাতীয় পরিষদের সদস্য কাদির খান করাচি পশ্চিম-২ আসন থেকে এমএনএ হয়েছেন। ফেরদৌস পাক প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী (তথ্য ও সম্প্রচার) এবং পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী (তথ্য)।