advertisement
আপনি দেখছেন

সাহসী সাংবাদিকতার জন্য ‘ফ্রি প্রেস অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলাম। তিনি পুরস্কারটি পেয়েছেন সেরা অদম্য সাংবাদিক বা ‘মোস্ট রেজিলিয়েন্ট জার্নালিস্ট’ ক্যাটাগরিতে। এর মধ্যে দিয়ে প্রথম কোনো বাংলাদেশি সাংবাদিক এই পুরস্কার পেলেন।

rozina islamরোজিনা ইসলাম

আমস্টারডামভিত্তিক সংস্থা ফ্রি প্রেস আনলিমিটেড গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় (বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত সোয়া ১২টা) নেদারল্যান্ডসের হেগ শহরের সিটি হলে এ সংক্রান্ত একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সেখানে রোজিনা ইসলামের পক্ষে পুরস্কারটি গ্রহণ করেন তার স্বামী মো. মনিরুল ইসলাম। রোজিনা ইসলামের পাসপোর্ট জব্দ থাকায় তিনি পুরস্কারটি নিতে যেতে পারেননি। তবে ভার্চুয়াল মাধ্যমে তিনি অনুষ্ঠানে যুক্ত হন। পুরস্কারের অর্থমূল্য সাড়ে ৭ হাজার ইউরো, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ৭ লাখ টাকার সমান।

ফ্রি প্রেস আনলিমিটেড দুটি শ্রেণিতে অ্যাওয়ার্ড দিয়ে থাকে। ‘মোস্ট রেজিলিয়েন্ট জার্নালিস্ট’ এবং ‘নিউ কামার অব দ্য ইয়ার’। সাংবাদিক রোজিনা পুরস্কারটি পান সেরা অদম্য সাংবাদিক শ্রেণিতে। বছরের সেরা নবাগত শ্রেণিতে পুরস্কার পেয়েছেন ভারতের তরুণ সাংবাদিক ভাট বুরহান।

rozina islam.jpg free press awardসাংবাদিকতা করতে গিয়ে নিপীড়নের শিকার হন রোজিনা ইসলাম

সাংবাদিকতায় রোজিনা ইসলামের সাহসিকতা ও নিরলস প্রচেষ্টার জন্য তাঁকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়েছে জানিয়ে ফ্রি প্রেস আনলিমিটেড বলেছে, বিভিন্ন বাধা সত্ত্বেও তিনি জনগণের তথ্য অধিকার সমুন্নত রাখতে সাহসী ভূমিকা পালন করছেন। স্বাধীন সাংবাদিকরা কীভাবে জনগণের জন্য পর্যবেক্ষক হিসেবে কাজ করে এবং গণতন্ত্র রক্ষায় এবং সমাজে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে অবদান রাখে তার একটি ভালো উদাহরণ রোজিনা।

মূলত মুক্ত সাংবাদিকতার জন্য লড়াই করা সাংবাদিকদের এই পুরস্কার দেওয়া হয়। সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা ও সাংবাদিকতার উৎকর্ষের জন্য বিশ্বের ৪০টিরও বেশি দেশে কাজ করে ফ্রি প্রেস আনলিমিটেড। সংস্থাটিকে সহায়তা করে নেদারল্যান্ডসের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।