advertisement
আপনি দেখছেন

গাড়ি ব্যবহারকারীরা মাত্রই জানেন রাস্তা ঘাটে গাড়ি নষ্ট হলে কী বিপদে পড়তে হয়। যাত্রায় বিরতি তো পড়েই, তার উপর গ্যারেজ খুঁজে তা সারাই করাও ব্যাপক হাঙ্গামার কাজ। আর তা যদি হয় বিলাসবহুল 'বি এম ডব্লিউ' এর মত গাড়ি তাহলে তো ঝামেলা বেড়ে যায় কয়েক গুণ। এই সমস্যা অনুধাবন করেই এক্সিকিউটিভ মটরস নিয়ে এসেছে 'বি এম ডব্লিউ সার্ভিসিং মোবাইল ভ্যান'।

bmw service mobile van

যাত্রাপথে গাড়ি নষ্ট হলে আশেপাশে গ্যারেজ না খুঁজে বরং সেখানে কল দিয়ে জানালেই এক ঘণ্টার মধ্যে হাজির হবে এই ভ্যান। অভিজ্ঞ টেকনিশিয়ানসহ ভ্যান হাজির হওয়ার পর যদি গাড়ি গ্যারেজে নিতেই হয় তখন ওই গাড়ি গ্যারেজে পৌছানোর ব্যবস্থা করার পাশাপাশি যাত্রীকে নিজ গন্তব্যে পৌছেও দেবে এই ভ্যান। আপাতত এই সুবিধা শুধু ঢাকার রাস্তায় সীমাবদ্ধ থাকবে। তবে খুব শীঘ্রই সারা দেশে এই সুবিধা চালু করা হবে বলে জানান সার্ভিস শাখার পরিচালক মোহাম্মদ বজলুল করিম।

সার্ভিস শাখার প্রধানের মতে, বি এম ডব্লিউতে সাধারনত কোন সমস্যা দেখা দেয় না। কিন্তু যেহেতু এটি একটি যন্ত্র তাই সমস্যা দেখা দেয়াটা স্বাভাবিক। এই মোবাইল সার্ভিসিং ভ্যানে সকল ধরনের ছোট খাটো সমস্যা সমাধানের যন্ত্রপাতি ও অভিজ্ঞ টেকনিশিয়ান থাকবে যাতে করে গাড়ি গ্যারেজে না এনেই সমস্যার সমাধান করা যায়। এতে আছে অতিরিক্ত চাকা, গাড়ীর রেইঞ্জ, হুইল রেইঞ্জ, চাকা খোলা ও লাগানোর যন্ত্রপাতি, জাম্প স্টার্টার, ক্যাবল ও ডায়াগনোসিস করার নানা সরঞ্জাম।

সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টার মধ্যে শুধু রাজধানীর জন্য এই সেবা প্রযোজ্য। তাদের হেল্প লাইনে কল করে এই সেবার জন্য সাহায্য চাইতে হবে। তবে অচিরেই সাত দিন, চব্বিশ ঘন্টা সেবা দেয়ার ইচ্ছা আছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি বিলাসবহুল এক্স-৩ বিএমডব্লিউ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এই সার্ভিসিং ভ্যানের ব্যাপারে বিস্তারিত বলা হয়।

sheikh mujib 2020