advertisement
আপনি দেখছেন

একটি নষ্ট ফোনের টাকা ফেরত চেয়ে পেলেন ১০টি নতুন ফোন। সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে এক গ্রাহকের সাথে। নষ্ট হওয়ায় একটি গুগল পিক্সল-৩ ফোন ফেরত দিয়ে গুগলের কাছে টাকা রিফান্ড চান ওই গ্রাহক। তার পরিবর্তে নুতন ১০টি পিক্সল-৩ ফোন পাঠিয়ে দেয় গুগল।

google pixle 3

গ্রাহকের দেয়া রেডিটের একটি পোষ্ট থেকে জানা যায়, তিনি একটি গুগল পিক্সল-৩ ফোন কেনেন। ফোনটি খারাপ হওয়ায় তিনি সেটি গুগলে ফেরত পাঠান। যাতে তিনি নতুন আরেকটি ফোন কিনতে পারনে। কিন্তু গুগলের পক্ষ থেকে ট্যাক্স বাবদ শুধুমাত্র ৮০ মার্কিন ডলার ফেরত দেয়া হয়। যদিও গ্রাহকের দাবি ছিলো ৯০০ মার্কিন ডলার।

অন্যদিকে এন্ড্রয়েড পুলিশ ওয়েবসাইটের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, একটি পিক্সল-৩ ফোন খারাপ হওয়ায় গ্রাহক সেটি গুগলের কাছে ফেরত পাঠান। যেটি ছিলো সাদা রঙের। পরবর্তীতে তিনি অন্য একটি অর্ডারে আরেকটি গুগল পিক্সল-৩ ফোন অর্ডার করেন। যেটি পিংক রঙের।

পরবর্তীতে গুগল ওয়্যারহাউজে এই অর্ডারটি যিনি শিপ করেছিনে তিনি ভুল করে ১০টি নতুন পিংক পিক্সল-৩ ফোন পাঠিয়ে দেন। যার বাজারমূল্য প্রায় ৯ হাজার মার্কিন ডলার বা ৬ লক্ষ ১৭ হাজার টাকারও বেশি।

রেডিট পোষ্টে এই গ্রাহক উল্লেখ করেন, আইনগতভাবে গুগল এই ফোনগুলো ফেরত দেয়ার জন্য জোর বা কোন ধরনের চাপ প্রয়োগ করতে পারবে না। তবে ফোনগুলো তিনি ফেরত দিতে চান। সাথে শর্তজুড়ে দেন তিনি তখনই এই ফোনগুলো ফেরত দেবেন যখন খারাপ হওয়া ফোনের টাকা রিফান্ড করা হবে। অন্যথায় বিক্রি করে দেবেন।

reedit post google pixle 3

পরে অবশ্য গুগলের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করে খারাপ হওয়ার ফোনটি বাবদ গ্রাহককে রিফান্ডের ৮৯৯ মার্কিন ডলার ফেরত দেয়া হয়। এরপরই শুক্রবার রাতে তিনি রেডিটে আরেকটি পোষ্ট করেন, যার শিরোনাম ছিল 'আমি সেই অতিরিক্ত ফোন পাওয়া ব্যক্তি, আমি টাকা ফেরৎ পেয়েছি'। তিনি গুলকে ধন্যবাদ জানান এবং শীঘ্রই অতিরিক্ত ফোনগুলো পাঠিয়ে দেয়ার কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আমি আশা করছি গুগল এটা থেকে ভালো শিক্ষা নেবে এবং সার্ভিস আরও উন্নত করবে।’

reedit post google pixle 3 2

sheikh mujib 2020