advertisement
আপনি দেখছেন

পৃথিবীর বিভিন্ন স্থান এবং দেশে প্রায়ই নানা মাত্রার ভূমিকম্পের খবর পাওয়া যায়। এবার দূরের গ্রহ মঙ্গলেও দেড় ঘণ্টাব্যাপী কম্পন অনুভূত হলো। গত শনিবার এমন ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা।

earthquake on marsমঙ্গলে ভূমিকম্প

বিজনেস ইনসাইডার জানিয়েছে, অন্যান্য দিনের মতো মঙ্গলের মাটিতে কাজ করছিল নাসার মনুষ্যবিহীন মহাকাশ যান ইনসাইট। কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই গত শনিবার হঠাৎ ভূমিকম্প শুরু হয়, যা চলে প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে।

ইনসাইটে থাকা সিসমোমিটারের মাধ্যমে ৪ দশমিক ২ মাত্রার ওই ভূমিকম্পের তথ্য পেয়েছেন মার্কিন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। দীর্ঘদিন ধরেই এই ধরনের বড় একটি ভূমিকম্পের জন্য অপেক্ষায় ছিলেন তারা। তবে এমন ভূমিকম্প পৃথিবীতে মাত্র কয়েক মিনিট স্থায়ী হলে লাখো মানুষের মৃত্যু ঘটতে পারতো বলে জানান বিজ্ঞানীরা।

earthquake on mars 1মঙ্গলে ভূমিকম্প, ফাইল ছবি

জানা যায়, ২০১৮ সালের নভেম্বরে মঙ্গলে পৌঁছায় নাসার ইনসাইট। এরপর চলতি বছরের ২৫ আগস্ট গ্রহটিতে জোড়া বড় ভূকিম্পের তথ্য পাঠায় মহাকাশ যানটি, যার মাত্রা ছিল যথাক্রমে ৪ দশমিক ২ ও ৪ দশমিক ১। তার আগে ২০১৯ সালে ৩ দশমিক ৭ মাত্রার সবচেয়ে বড় ভূমিকম্প হয়েছিল।

এ বিষয়ে ইনসাইটের প্রিন্সিপাল ইনভেস্টিগেটর ব্রুস ব্যানার্ডট জানান, ক্ষমতার দিক দিয়ে ২০১৯ সালের ভূমিকম্পের চেয়ে শনিবারের কম্পন ছিল ৫ গুণ বেশি। মঙ্গলে ছোট ভূমিকম্পের চেয়ে বড় ভূমিকম্পে আঘাত হানার ঘটনা কমই ঘটে বলে জানা যাচ্ছে।

মঙ্গলের কেন্দ্র ও পৃষ্ঠের পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে তিনি আরো জানান, গত ৪৫০ কোটি বছরে খুব একটা পরিবর্তন হয়নি সেখানে। এ থেকে শুরুর দিকে পৃথিবীর অবস্থা সম্পর্কে আমরা ধারণা পেতে পারি। মঙ্গলের তথ্য অন্যান্য পাথুরে গ্রহগুলোর জন্ম রহস্য এবং সেগুলো বিবর্তিত হওয়ার বিষয়েও ধারণা দিচ্ছে।