advertisement
আপনি দেখছেন

যানজটের এই ঢাকায় শপিং করা মস্ত এক হ্যাপার নাম। আর তাই প্রত্যেক ক্রেতাই চান গাড়ি-ঘোড়ার ঝক্কি ঝামেলা এড়িয়ে নির্বিঘ্নে একটু শপিং করতে। কিন্তু চাইলেই তো আর তা সম্ভব নয়। কারণ সব ধরণের পণ্য নিশ্চয়ই আপনার বাড়ির কাছে পাওয়া যায় না। আর পাওয়া গেলেও ঠিক ততোটা মানসম্পন্ন নয়, যতোটা ভালো কোনো ব্রান্ড হাউজ থেকে আপনি নিজে কিনে নিলে পাওয়া যেতো।

Storrea: E-commerce store

ক্রেতার এই ইচ্ছা এবং অক্ষমতাকে পুঁজি করে ইতোমধ্যেই দেশে গড়ে উঠেছে হাজারও অনলাইন শপ। যারা ক্রেতার জন্য অনেক কম দামে সবচেয়ে ভালো পণ্যটি দিয়ে সাজিয়ে বসে আছেন নিজের অনলাইন পসরা। ক্রেতা ক্লিক করে নিজের ইচ্ছার কথা জানান দিলেই পছন্দের পণ্যটি পৌঁছে যাবে একেবারে নিজের দোরগোড়ায়।

দেশের এই অনলাইন শপগুলোর অধিকাংশই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুককে কেন্দ্র করে পরিচালিত হচ্ছে। বেচা-বিক্রিও হচ্ছে প্রচুর। তবে কথা হচ্ছে, যতোই বিকিকিনি হোক, দুধের স্বাদ কি আর ঘোলে মেটে! ফেসবুকের পেজে পণ্য সাজিয়ে কিংবা বিক্রি করে ই-কমার্স সাইটের স্বাদ তো পাওয়া যায় না কখনোই। তারপর আবার রয়েছে ফেসবুকের নানান সীমাবদ্ধতা। এতোকিছুর পরও অনলাইন বিক্রেতারা নিজের স্বতন্ত্র একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান না। এর কারণ সারাদিন বিকিকিনির এতো হ্যাপা সামলে ওয়েব ডেভেলপারের কাছে দৌঁড়োতে কারই বা মন চায়।

তবে এবার বুঝি কষ্টের দিন ফুরোলো। অনলাইন বিক্রেতাদের জীবনকে সহজ ও সাবলীল করার প্রত্যয় নিয়ে আবির্ভাব হয়েছে স্টোরিয়া’র। যা বিক্রেতাকে দিবে পরিপূর্ণ স্বতন্ত্র একটি ওয়েবসাইটের স্বাদ। মার্কেটপ্লেসে নিজের পণ্য উপস্থাপন আর কোনো ব্যাপারই নয়।

না, স্টোরিয়া থেকে স্বতন্ত্র একটি ওয়েবসাইটের মালিক হতে আপনার কোনো টেকনিক্যাল জ্ঞান থাকতে হবে না। ওয়েব ডেভেলপমেন্টের জ্ঞান তো নয়ই। শুধুমাত্র আপনার ই-মেইল এড্রেস ব্যবহার করেই আপনি হয়ে যেতে পারেন একটি অনলাইন স্টোরের মালিক!

পাবেন নিজের ডোমেইন। থাকবে অ্যাডমিন প্যানেল। আপলোড করতে পারবেন আপনার পণ্যের সকল ছবি। এবং অবশ্যই বিস্তারিত বর্ণনাসহ। বিভিন্ন সাইজের বাহারি রং এর ব্যাপারটাও উল্লেখ করে দিতে পারেন। সাথে যোগ করে দিন পণ্যের দাম। ক্রেতা আপনার সাইটে এসে পণ্য যোগ করবেন কার্টে। চেকআউট করে বের হয়ে যাওয়ার সাথে সাথে আপনি পেয়ে যাবেন ই-মেইল অ্যালার্ট। এবার অ্যাডমিন প্যানেল থেকে আপনি অর্ডারগুলোও নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

এছাড়া পাবেন সকল পণ্যের ইনভেন্টরি রিপোর্ট। আছে আপনার সাইটের ভিজিটর রিপোর্টও। এই সব সুবিধাই বিক্রেতা পাবেন সহজবোধ্য অ্যাডমিন প্যানেলে। বিক্রেতারা তাদের ফেইসবুক পেইজের সাথেও লিংক জুড়ে দিতে পারবেন সকল পণ্যের। ফেইসবুকেই আপনার পণ্য দেখতে পারবে আপনার পেইজের ভিজিটররা। একটি পুর্ণাংগ ওয়েবসাইট আপনাকে দিবে অনলাইনে বিক্রি করার অবাধ স্বাধীনতা। আছে নিজের ব্র্যান্ড ভ্যালু প্রতিষ্ঠা করার মত সুযোগ। 

স্টোরিয়া’র প্ল্যাটফর্মের এই ধারণা বাংলাদেশে এই প্রথম। বাংলাদেশের ক্রমবর্ধমান ই-কমার্স বিকিকিনিকে বিশ্বমানে নিয়ে যেতেই তাদের এই প্রচেষ্টা। তো আর দেরি কেন? আপনিও হয়ে উঠুন একজন স্বাপ্নিক। আপনার পণ্য কে পৌঁছে দেন বিশ্বের দরবারে।

আপনি আরও পড়তে পারেন

গুগলের ‘আত্মঘাতী ইমেইল’!

শীর্ষ ১০ ধনীর তালিকায় জাকারবার্গ

ড্রোন বানাবে সনি

Bangladesh Newspaper

sheikh mujib 2020